ওসমানীনগরে খুনের ঘটনায় মামালা হয়নি

12

ওসমানীনগর প্রতিনিধি
ওসমানীনগরে দুই চাচাত ভাইয়ের মধ্যে সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে চাচি খুন হওয়ার ঘটনায় দুই দিন অতিবাহিত হলেও থানায় এখনো মামালা দায়ের করা হয়নি। এছাড়া এ ঘটনায় জড়িত কাউকে আটকও করতে পারেনি পুলিশ। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের পর গতকাল রোববার দুপুরে বাড়িতে আসার পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে বলে পারিবারকি সূত্রে জানা গেছে।
গত শনিবার দুপুরে ট্যাংক নির্মান নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে নিহতের দেবরের ছেলে সাদিপুর ইউনিয়নের ফকিরাবাদ গ্রামের আবুল কালামের পুত্র ইমন মিয়া ও আব্দুর রহিমের পুত্র আজিজুলের মধ্যে সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। সংঘর্ষ থামাতে তাদের চাচি আব্দুর রউফের স্ত্রী আরিফুল নেছা এগিয়ে এলে বুকে ধারালো অস্ত্রের (ছুলফি) আঘাতে নিহত হন তিনি। খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করে। ময়না তদন্ত শেষে গতকাল রোববার নিহতের বাড়িতে লাশ আসার পর সেখানে এক হৃদয় বিদায়ক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়। পরে তাদের পারিবারিক কবর স্থানে নিহতের লাশ দাফন সম্পন্ন হয়। এদিকে, ঘটনার দুই দিন অতিবাহিত হলেও এ ঘটনায় মামালা দায়ের বা ঘটনার সাথে জরিত কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।
ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ওসমানীনগর থানার সেকেন্ড অফিসার সুজিত চক্রবর্তী বলেন, জরিতদের গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপর রয়েছে। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় কোন অভিযোগ দায়ের না করায় মামালা দায়েরে বিলম্ব হচ্ছে। তবে, থানা পুলিশের পক্ষ থেকে এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

  •