দক্ষিণ সুনামগঞ্জে এবার এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কম

9

শাহনুর সুলতান, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ
দক্ষিণ সুনামগঞ্জে চলতি বছরের এসএসসি ও দাখিল পরীক্ষায় গত বছরের তুলনায় কমেছে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা। উপজেলায় এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় ১৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অংশগ্রহণ করবে ১ হাজার ৩শত ২৪ জন পরীক্ষার্থী। যা গত বছরের তুলনায় ৫৭ জন কম। উপজেলার ৩টি কেন্দ্রে এসব পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।
এদিকে, পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে মাদ্রাসায়ও। উপজেলার একমাত্র দাখিল পরীক্ষা কেন্দ্র আক্তাপাড়া আলিম মাদ্রাসায় গত বছরের চেয়ে ১০৩ জন কম পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। ৬টি মাদ্রাসা থেকে এ বছর উপজেলার মোট দাখিল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১শত ৪৭ জন।
সংশ্লিষ্ঠ সূত্র জানা যায়, ২০১৭ সালের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের উত্তীর্ণের সংখ্যা কম ছিলো। তাই ২০১৮ সালে নবম শ্রেণিতে ভর্তিও হয়েছে কম। এ ছাড়াও ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে অনেক শিক্ষার্থী ঝড়ে পড়েছে। এসব কারণেই মূলত এবছর গত বছরের তুলনায় পরীক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে। তবে দক্ষিণ সুনামগঞ্জ মাধ্যমিক শিক্ষা কার্যালয় পরীক্ষাকে কেন্দ্র সব ধরণের সফল প্রস্তুুতি নিয়েছে। তারা আশা করছেন কোনো রকমের আপত্তিকর অবস্থা ছাড়াই নির্বিঘেœ পরীক্ষা সম্পন্ন করতে পারবেন।
উপজেলার একাডেমিক সুপারভাইজার নূরে আলম সিদ্দিকী বলেন, ‘আমরা সব ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছি। আশা করছি ভালোভাবেই মাসব্যাপী পরীক্ষাটি নির্বিঘ্নে নিতে পারব। স্কুল পর্যায়ে ৩টি ও মাদ্রাসা পর্যায়ে ১টি কেন্দ্রে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকলের জন্য শুভ কামনা।’
মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অশোক রঞ্জর পুরকায়স্থ জানান, ‘মূলত এই ব্যাচটি যখন জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা দিয়েছিলো তখন ফলাফল কিছুটা কম হয়েছিলো। তাই নবম শ্রেণিতে ভর্তিও কম হয়েছে। এ ছাড়াও নবম-দশম শ্রেণিতে পড়াকালীন সময়ে আরো অনেকে ঝড়ে পড়েছে। তবে আশার বাণী হচ্ছে, সরকার ঝড়ে পড়া অনেকটাই রোধ করতে সক্ষম হচ্ছেন। গত বছর যেখানে ঝড়ে পড়া ছিলো ৪০% সেখানে এ বছর ২৫%। এটা অবশ্যই বাংলাদেশের জন্য একটি ইতিবাচক সংবাদ। তবে, আমরা আশাবাদী পরীক্ষার্থী এ বছর কম হলেও ফলাফল ভালো হবে।

  •