ওসমানীনগরে পারিবারিক উদ্যোগে বঙ্গবীর ওসমানীর মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

6

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি
ওসমানী নগরে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রধান সেনাপতি জেনারেল এমএজি ওসমানীর মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল রোববার উপজেলার দয়ামীর জলালপাড়াস্থ তাঁহার নিজবাড়ীতে পারিবারিক উদ্যোগে খতমে কুরআন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। মাহফিলে সাবেক এমপি শফিকুর রহমান চৌধুরী, ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান গয়াস মিয়া, দয়ামীর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এটিএম ফখর উদ্দিন, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ, বালাগঞ্জ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এমএ মতিন, পশ্চিম গৌরীপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান এসএম আনোয়ারুল হক, উছমানপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাহমুদ আলী সিকদার, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদ জগলু চৌধুরী, ওসমানীনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজলু চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দাল মিয়া, ওসমানী নগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মহিমা সুলতানা সুমি, বালাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি রজত চন্দ্র দাস ভুলন, ওসমানীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি জুবেল আহমদ সেকেল, বালাগঞ্জ-ওসমানীনগর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহাব উদ্দিন শাহীন, সাংবাদিক বদরুল আলম চৌধুরী, মো. জিল­ুর রহমান জিলু, আবু-হানিফা, এসএম হেলালসহ জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকতাসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকজন এবং এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ শরিক হন। এসময় আমন্ত্রিত অতিথিদের স্বাগত জানান, এমএজি ওসমানী পরিবারের সদস্য ও বিশিষ্ট ব্যাংকার জনাব, টিটু ওসমানী।
উলে­খ্য, এমএজি ওসমানী সিলেট জেলার বালাগঞ্জ উপজেলা (বর্তমান ওসমানী নগর উপজেলা) দয়ামীর জলালপাড়া গ্রামের খান বাহাদুর মফিজুর রহমান ও জোবেদা খাতুন পুত্র। দুই ভাই ও এক বোনের মধ্যে এমএজি ওসমানী সবার ছোট ছিলেন। তিনি ১৯৮৪ সালে ১৬ ফেব্রæয়ারি লন্ডনে একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তিনি বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে মুক্তিবাহিনী ও সেনাবাহিনীর প্রধান সেনাপতি ছিলেন।

  •