ডায়রিয়া ও কলেরার প্রকোপ কমাতে টিকা দেওয়া শুরু আজ থেকে

12

সবুজ সিলেট ডেস্ক
দেশের ডায়রিয়া ও কলেরার প্রকোপ কমাতে আজ বুধবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে টিকাদান কর্মসূচি। ঢাকার ছয়টি থানার ১৬টি ওয়ার্ডে ছয়দিনব্যাপী এই কর্মসূচি চলবে ২৫ ফেব্রæয়ারি পর্যন্ত। এক বছরের বেশি বয়সী শিশুসহ সবার জন্য এই ক্যাম্পেইন চলবে।
গতকাল মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের কনফারেন্স রুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। এ সময় স্বাস্থ্য অধিদফতরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক অধ্যাপক ডা. শাহলীনা ফেরদৌসী ও আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রের (আইসিডিডিআরবি) এমিরেটাস বৈজ্ঞানিক ড. ফেরদৌসী কাদরী বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আইসিডিডিআরবির এক জরিপে দেখা যায় বর্তমানে দেশে কলেরার প্রাদুর্ভাব আছে। ডায়রিয়াজনিত রোগের মধ্যে ২০ শতাংশ কলেরা জীবাণুবাহী। তাই ২০৩০ সালের মধ্যে দেশকে কলঙ্কমুক্ত করাই এখন বড় চ্যালেঞ্জ। আপাতত ছয়টি থানা দিয়ে এই কার্যক্রম শুরু হলেও পর্যায়ক্রমে সারাদেশেই এই কার্যক্রম চালানো হবে।
এমিরেটাস বৈজ্ঞানিক ড. ফেরদৌস কাদরী বলেন, ঢাকার মোহাম্মদপুর, হাজারীবাগ, লালবাগ কামরাঙ্গীরচর, দারুস সালাম আদাবর থানার মোট ১৬টি ওয়ার্ডে এ ক্যাম্পেইনের আওতায় কলেরা ভ্যাকসিনের টিকা খাওয়ানো হবে।
আইসিডিডিআরবির সর্বশেষ পরিসংখ্যান তুলে ধরে ড. কাদরি বলেন, ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে যারা মহাখালী কলেরা হাসপাতালে আসেন তাদের মধ্যে মোহাম্মদপুর এলাকার প্রতি হাজার রোগীর ভেতর ৪ দশমিক ৯ শতাংশ, আদাবর এলাকায় ১.৩ শতাংশ, দারুস সালাম এলাকার দশমিক ৩ শতাংশ, লালবাগ এলাকার ২ দশমিক ১ শতাংশ, কামরাঙ্গীরচর এলাকার ১ দশমিক ৫ শতাংশ, হাজারীবাগ এলাকার ১ দশমিক ৭ শতাংশ রোগী কলেরায় আক্রান্ত।
সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সিটি করপোরেশনের স্থায়ী টিকাদান কেন্দ্রসহ ৩৬০ টিকাদান কেন্দ্রের মাধ্যমে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এই টিকা দেওয়া হবে।

  •