পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা হামলা কী হবে বাংলাদেশ সিরিজের?

4

সবুজ সিলেট ডেস্ক
প্রথমে টি-টোয়েন্টি সিরিজ এরপর এক ম্যাচ টেস্টও পাকিস্তানে খেলে এসেছে বাংলাদেশ জাতীয় দল। আর এরপর একটি ওয়ানডে আর বাকি এক টেস্ট খেলতেও পাকিস্তানে যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড যে নিরাপত্তার কথা বলে আসছিল তা এবার শঙ্কার মুখে।
পাকিস্তানে আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ১০ জন নিহত হয়েছে নিশ্চিত করেছে রয়টার্স। হামলায় নিহতদের মধ্যে দু’জন পুলিশ সদস্যও রয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন সিনিয়র এক পুলিশ কর্মকর্তা। সোমবার দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমে বেলুচিস্তান প্রদেশের রাজধানী কোয়েটাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে।
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড যখন দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে মরিয়া ঠিক তখনই এমন হামলায় আবারো শঙ্কা জেগে উঠেছে। ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর হামলার পর যে বড় কোনো দলই পাকিস্তানে যেতে রাজি হচ্ছে না। তবে নিজ দেশে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে আরো একটি বড় ধাক্কার সম্মুখীন হলো পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। আর সেটিও পাকিস্তান ক্রিকেট লিগের (পিসিএল) পঞ্চম আসর শুরুর ঠিক আগ মূহুর্তেই।
পাকিস্তানে ক্রিকেট ফেরানোর লক্ষ্যে এবার পুরো পিএসএলই আয়োজিত হবে নিজেদের দেশে এমনাটাই জানিয়েছিল পিসিবি। টুর্নামেন্টে কোয়েটার একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি দলও আছে। তবে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়টেরসের কোনো ম্যাচই এবার হোম ভেন্যুতে নেই।
আগামি ফেব্রæয়ারি ২০ তারিখ থেকে পিসিএল’র পঞ্চম আসর মাঠে গড়াবে। পাকিস্তানের করাচি, লাহোর, রাওয়ালপিন্ডি এবং মুলতানে সব মিলিয়ে মোট ৩৪টি ম্যাচ আয়োজিত হবে। তবে টুর্নামেন্টের মাত্র ২দিন আগে এমন হামলায় বেশ নড়েচড়ে বসতে হচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে।
আর এবার দেখার বিষয় এমন নিরাপত্তার অবস্থা মাথা রেখে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড তৃতীয় দফায় পাকিস্তান সফর করতে যেতে চাইবে কিনা। এর আগে নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে বাংলাদেশের বেশ কিছু ক্রিকেটার পাকিস্তানে খেলতে যেতে রাজী হয়নি তা জানিয়েছিলেন খোদ বিসিবি প্রেসিডেন্টই। এবার দেখার বিষয় সদ্য এমন আত্মঘাতী হামলার পর বিসিবি কি সিদ্ধান্ত নেয়।

 

  •