ইসহাক কাজলের শোকসভায় মেনন সাংবাদিক ইসহাক কাজল শ্রমজীবী মানুষের মুক্তির কথা বলে গেছেন

4

স্টাফ রিপোর্টার
মেহনতি শ্রমজীবী মানুষের মুক্তির সংগ্রামের অগ্রপথিক, বাম প্রগতিশীল আন্দোলনের অন্যতম নেতা, বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি সিলেট জেলার প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক, বীর মুক্তিযোদ্ধা যুক্তরাজ্য প্রবাসী লেখক গবেষক সাংবাদিক ইসহাক কাজলের নাগরিক শোকসভায় অংশ নিয়ে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে সাবেক মন্ত্রী বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পাটির কেন্দ্রীয় সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, একজন সাংবাদিক রাজনীতিবিদ হিসেবে ইসহাক কাজল আজীবন এদেশের শ্রমজীবি দলিত মানুষের মুক্তির কথা বলে গেছেন। সাংবাদিকতা ও রাজনীতি দুই সত্তায় তিনি একজন সফল মানুষ ছিলেন। শোষিত, গরিব অসহায় শ্রমজীবী মানুষের জন্য এবং সমাজ পরিবর্তনের জন্য তিনি আন্দোলন করেছেন।
রাশেদ খান মেনন বলেন, আজকের শোকসভায় এসে ইসহাক কাজলকে আমি আবার নতুন করে আবিষ্কার করলাম। তিনির বর্ণাঢ্য জীবনের গল্প শুনে অনুপ্রাণিত হলাম। সিলেটে হকার্স সমিতি, রিকসা শ্রমিক, চা-শ্রমিকদের সংগঠিত করে তাদের অধিকার আদায়ে লড়াই করে ইসহাক কাজল তাদের অন্তরে স্থান করে নিয়েছেন। কমিউনিস্ট আন্দোলন যখন রুদ্ধ হয়ে গিয়েছিল তখন তিনি ওয়ার্কার্স পার্টির সাথে সম্পৃক্ত হয়ে বামরাজনীতিকে প্রতিষ্টিত করেছেন। এরশাদ বিরোধী আন্দোলন করেছেন। রাজনীতিবীদরা যেখানে চা-শ্রমিকদের ভোট ব্যাংক হিসেবে ব্যাবহার করেন, ইসহাক কাজল সেখানে তাদের মুক্তির জন্য কথা বলেন।
শোকসভায় অংশ নিয়ে রাশেদ খান মেনন সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, সকল ভয় ভীতির উর্ধে উঠে সংবাদপরিবেশন করতে হবে। ভয়কে জয় করার মাধ্যমে মানুষকে বস্তুনিষ্ট সংবাদ দিতে হবে। মঙ্গলবার বিকেলে সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে শোকসভা উদযাপন কমিটির আহŸায়ক ও গণতন্ত্রী পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি ব্যারিষ্টার আরশ আলীর সভাপতিত্বে ও ওয়ার্কার্স পার্টির সিলেট জেলা শাখার সম্পাদক ইন্দ্রাসী সেন সম্পার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ আলোচকের বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট লেখক প্রথম আলোর যুগ্ম সম্পাদক মিজানুর রহমান খান। শুরুতে ইসহাক কাজলের জীবনী পাঠ করেন শোকসভা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব ওয়ার্কাস পার্টির সিলেট জেলা সভাপতি কমরেড সিকন্দর আলী।
বক্তব্য রাখেন জাসদের কেন্দ্রীয় যুগ্ন সম্পাদক ও সিলেট জেলা সভাপতি লোকমান আহমদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, সাবেক সভাপতি দৈনিক জালালাবাদ সম্পাদক মুকতাবিস উন নূর, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এটিএম ফয়েজ, গণফোরামের সিলেট জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট আনসার খান, সাম্যবাদী দলের সিলেট জেলা সভাপতি কমরেড ধীরেন সিংহ, সিনিয়র সাংবাদিক দৈনিক সবুজ সিলেটের উপসম্পাদক আ.ফ.ম. সাঈদ, মৌলভীবাজার জেলা ওয়ার্কার্স পার্টির সাবেক সম্পাদক আব্দুল হান্নান চিনু, কাজল ইসহাকের ভাই স্কুল শিক্ষক টিকুল আলী, জেলা গণতন্ত্রী পার্টির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রকৌশলী আইয়ুব আলী, ন্যাপ সিলেট জেলার সম্পাদক এম এ মতিন, সিসিকের ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রেজওয়ান আহমদ, কমিউনিস্ট পার্টির সিলেট জেলা সভাপতি এড. আনোয়ার হোসেন, দৈনিক সিলেটের ডাক এর সিনিয়র রিপোর্টার এম আহমদ আলী, সিলেট মহানগর সংবাদপত্র হকার্স সমিতির সভাপতি আব্দুস সালাম, বাসদের জেলা নেতা এড. হুমায়ুন রশীদ চৌধুরী, উদীচী শিল্পী গোষ্ঠী সিলেটের সভাপতি এনায়েত হোসেন মালিক, চা-শ্রমিক নেতা নিকেশ মণি, সংবাদপত্র হকার্স শ্রমিক নেতা আব্দুস সাত্তার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সিলেটের সভাপতি আমিনুল ইসলাম চৌধুরী লিটন প্রমুখ। শোকসভার শুরুতে ইসহাক কাজলের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান অতিথিরা এবং ১ মিনিট দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করেন। বিজ্ঞপ্তি

  •