জেলা বিএনপির আহবায়কের অপসারণের দাবিতে বালাগঞ্জে মতবিনিময়

8

বালাগঞ্জ প্রতিনিধি
বালাগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সদ্যঘোষিত আহবায়ক কমিটি বাতিল ও জেলা আহবায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদারের অপসারণের দাবিতে তৃণমূল বিএনপি নেতৃবৃন্দ মতবিনিময় করেছেন। গত শনিবার বিকেলে বালাগঞ্জ পূর্ব বাজারে বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে এ মতবিনিময় সভায় লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা বিএনপির সদ্য সাবেক সাধারণ সম্পাদক এম মুজিবুর রহমান।
মকবিনিময়কালে জেলা বিএনপির আহবায়কের বিরুদ্ধে বক্তারা বিভিন্ন অভিযোগ করে বলেন, সদ্য ঘোষিত বালাগঞ্জ উপজেলা আহবায়ক কমিটিতে দলের ত্যাগী ও অবৈধ সরকারের বিভিন্ন মামলা হামলার আসামি সিনিয়র নেতৃবৃন্দকে বাদ দিয়ে জেলা আহবায়কের পছন্দসই ব্যক্তিবিশেষকে স্থান করে দেন। যারা দলীয় কোনো কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেননিা ও কোনো মামলার আসামিও নয়।
জেলার আহবায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদার যাকে আহবায়ক নির্বাচিত করেছিলেন তার বিরুদ্ধেও কোনো মামলা নেই। তিনি আওয়ামী লীগের সাথে আঁতাত করে ব্যবসা বাণিজ্য করছেন। তিনি বিশেষ এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য দলের স্বার্থ জলাঞ্জলি দিয়ে তার মনগড়া কমিটি করেছেন। অদক্ষ, অযোগ্য, নগ্ন গ্রæপিং সংশ্লিষ্ট জেলা বিএনপির আহবায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদারের এমন কার্যকলাপের বিরুদ্ধে ৬টি ইউনিয়নের তৃণমূল বিএনপির নেতৃবৃন্দ ফুঁসে উঠেছেন।
জেলা বিএনপির আহবায়ক কামরুল হুদা জায়গীরদারের অপসারণের মাধ্যমে দলের মধ্যে শৃংখলা ফিরিয়ে এনে সাংগঠনিক গতিশীলতা এনে একটি অর্থবহ বালাগঞ্জ উপজেলা আহবায়ক কমিটি গঠনকল্পে বালাগঞ্জ উপজেলায় একটি শক্তিশালী নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশনেত্রীর মুক্তির আন্দোলন ও প্রিয় নেতা এম. ইলিয়াস আলীকে ফিরিয়ে পাওয়ার দাবিতে গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ দেশনায়ক তারেক রহমান, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও কেন্দ্রীয় বিএনপি সিলেট বিভাগীয় নেতৃবৃন্দের কাছে আহবান জানানো হয় মতবিনিময় সভা থেকে।
এতে উপস্থিত ছিলেন উপজেলার দেওয়ান বাজার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মো. সুরুজ আলী মেম্বার, মো, সাধারণ সম্পাদক তোফায়েল আহমদ সুহেল, বালাগঞ্জ সদর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মো. মকবুল মিয়া মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক শেখ জামাল আহমদ খলকু, বোয়ালজুড় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপকি রফিক মিয়া, পূর্বপৈলনপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আব্দুল বারী, পূর্বগৌরীপুর ইউনয়ন বিএনপির সভাপতি এস এম কুতুব উদ্দিন, বিএনপির নেতা মো. আজম আলী, মো. হারুন মিয়া মেম্বার, মো. হেলাল আহমেদ, এ কে আজাদ পনির, মামুনুর রশিদ সোহেল, মিজু আহমদ লুলু, আব্দুছ সালাম, মাসুক মিয়া, রেজাউল আহমদ, মুনিম আহমদ, হেলাল নির্ঝর, মকবুল মিয়া, শামিম আহমদ, মোমিনুল হক, ইকবাল হোসেন, হোসেন আহমদ, আমির উদ্দিন, আবুল হাসান, রায়হান আহমদ, মিজান আহমেদ, জাবেদ আহমদ, নোমান লস্কর।

  •