নির্ভয়ে হজের নিবন্ধন করুন, সব দায়িত্ব সরকারের : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

5

সবুজ সিলেট ডেস্ক
সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেছেন, ‘করোনা ভাইরাসের কারণে সতর্কতামূলকভাবে ওমরাহ ভিসা ইস্যু সাময়িক বন্ধ রেখেছে সৌদি আরব। এই নিষেধাজ্ঞা যেকোনও সময় উঠে যেতে পারে। তখন হয়তো হজে যাওয়া সম্ভব নাও হতে পারে। কারণ হজে যাওয়ার বিভিন্ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সময় লাগে কমপক্ষে ২ মাস।’ তাই হজ পালনে নির্ভয়ে হাজিদের নিবন্ধন ও প্রয়োজনীয় টাকা-পয়সা ব্যাংকে জমা করার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।
গতকাল রোববার সচিবালয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।
ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেছেন, ‘চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩০ জুলাই এ বছর হজ অনুষ্ঠিত হবে। ২৩ জুন থেকে হজ ফ্লাইট শুরু হবে। এ বছর যারা হজ পালনে ইচ্ছুক তারা আগামী ১৫ মার্চ পর্যন্ত হজে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন করতে পারবেন।’
ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘করোনা ভাইরাসের প্রভাবে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় এ বছর হজযাত্রীরা আশানুরূপ নিবন্ধন করছে না।’ শঙ্কায় না থেকে এ বছর যারা হজে যেতে চান, তাদের অবিলম্বে হজ নিবন্ধন করতে অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, ‘এ পর্যন্ত সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৭২৫ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৪৮ জন হজে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছেন। এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৭ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ২০ হাজারসহ মোট ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮ জন হজে যেতে পারবেন।’
শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আরও বলেন, ‘আমি ধর্ম মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নিচ্ছি, খোদা না করুক করোনার কারণে কেউ যদি হজে যেতে না পারেন, সমস্ত টাকা তার হাতে ফিরিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব আমি নিলাম। হাজিরা চাইলে টাকা ফেরত না নিয়ে যদি পরের বছর হজে যেতে চান সে ব্যবস্থাও করা হবে। তাছাড়া তিনি যখন চাইবেন সেভাবেই টাকা ফেরত দেওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। যদি কোনও এজেন্সি হাজিদের টাকা দেওয়ার ব্যাপারে গাফিলতি করে তাহলে ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে সেই এজেন্সির লাইসেন্স বাতিল করা হবে।’
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি এম শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, ‘হাবের পক্ষ থেকেও দায়িত্ব নিয়ে বলছি, কোনও কারণে কোনও হাজি যদি হজে যেতে না পারেন তাহলে ধর্ম মন্ত্রণালয় যে উদ্যোগ নিয়েছে আমরাও সেভাবেই কাজ করবো।’

  •