কুলাউড়ায় অন্তরঙ্গ ভিডিও ভাইরালের হুমকিতে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

57

কুলাউড়া প্রতিনিধি
আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল করার হুমকিতে এক ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। আত্মহত্যাকারী ওই ছাত্রীর প্রেমিক রুহান মিয়া এই হুমকি দিয়ে আসছিলো। কুলাউড়ার পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডের উত্তর লস্করপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
গত রোববার বসতঘরের ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে ওই ছাত্রী। তিনি দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রী এবং কুলাউড়া পৌরসভার উত্তর লস্করপুর এলাকার দুবাই প্রবাসী ওয়াজ উদ্দিনের মেয়ে। এঘটনায় নিহত জেবিনের মা আছিয়া বেগম বাদী হয়ে ১৫ মার্চ রাতে প্রেমিক রুহান মিয়া সহ অজ্ঞাত ৩ জনকে আসামী করে একটি মামলা (নং-১১) দায়ের করেছেন।
কলেজ ছাত্রীর স্বজন ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ওই ছাত্রী কলেজ যাওয়া আসার সময় পৌর শহরের পার্শ্ববর্তী ৬নং ওয়ার্ডের উত্তর জয়পাশা গ্রামের ধলা মিয়ার পুত্র রুহান মিয়ার সাথে বন্ধুত্বের সম্পর্কের এক পর্যায়ে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সা¤প্রতি তাদের সম্পর্কের অবনিত হয়। এতে রুহান তাঁর মোবাইলে থাকা তাঁদের অন্তরঙ্গ ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেয়। রোববার সকালে পরিবারের সবার অজান্তে বসত ঘরের ভেতর ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করে ওই ছাত্রী। খবর পেয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (কুলাউড়া সার্কেল) সাদেক কাওসার দস্তগীর, কুলাউড়া থানার ওসি ইয়ারদৌস হাসান ও এস আই মো. রফিকুল ইসলামসহ পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।
নিহতের ছোট ভাই সালাউদ্দিন মোবাইলে জানান, রুহান মিয়ার প্ররোচণায় আমার বোন আত্মহত্যা করেছে। এ ব্যাপারে লিখিতভাবে থানায় অভিযোগ করা হয়েছে।
কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইয়ারদৌস হাসান গতকাল সোমবার বিকেলে মুঠোফোনে জানান, ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ তাঁর পরিবারের স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এঘটনায় নিহত জেবিনের মা আছিয়া বেগম বাদী হয়ে কতিথ প্রেমিক রুহান মিয়া সহ অজ্ঞাত ৩ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

  •