অতিরিক্ত পণ্য না কেনার আহবান জেলা পুলিশের

8

স্টাফ রিপোর্টার
সম্প্রতি নভেল করোনা ভাইরাসের কারণে বিশ্বব্যাপী সবাই এক ক্রান্তিকালের মধ্য দিয়ে অতিক্রম করছে। করোনা ভাইরাসের কারণে আতঙ্কিত হয়ে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পণ্য কিনে মজুদ না করার আহবান জানিয়েছে সিলেট জেলা পুলিশ। সিলেটে সকল প্রয়োজনীয় পণ্যের যথেষ্ট মজুদ রয়েছে উল্লেখ করে জেলা পুলিশ থেকে যে বার্তাটি দেয়া হয়েছে তা হুবহু তুলে ধরা হলো:
সস্প্রতি করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে জনসচেতনতা তৈরীর লক্ষে বিভিন্ন পদক্ষেপ চলমান রয়েছে।সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় আমরা যখন করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে কাজ করছি ঠিক তখন বাজারে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নিত্যপন্যের সরবরাহ ঘাটতির অজুহাতে কিছু জিনিষের দাম বৃদ্ধির কৌশল নিয়েছিল।
বিষয়টি আমাদের নজরে আসার সাথে সাথে জেলা পুলিশ এবং জেলা প্রশাসন যৌথভাবে জিনিষপত্রের দাম স্বাভাবিক রাখতে জেলার প্রতিটি এলাকায় বাজার মনিটরিং করতে শুরু করে। এর ধারাবাহিকতায় অনেক জায়গায় কিছু ব্যবসায়ীদের জরিমানা করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এরকম কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।
তবে একটি বিষয় পরিলক্ষিত হয় যে,করোনা ভাইরাসের সামগ্রিক পরিস্থিতির কারনে বাজারে নিত্যপন্যের স্বাভাবিক সরবরাহ বন্ধ হয়ে যাবে মর্মে একটি অসাধু চক্র গুজব ছড়াচ্ছে।এরকম তথ্যে বিভ্রান্ত হয়ে সাধারন ক্রেতাদের মধ্যে এক ধরনের আতংক তৈরী হচ্ছে। যার দরুন মানুষ প্রয়োজনের অতিরিক্ত পন্য কিনতে খুচরা দোকানীদের কাছে ভীড় করছে।প্রকৃতপক্ষে বাজারে নিত্যপন্যের স্বাভাবিক সরবরাহ বন্ধ হওয়ার কোন সম্ভাবনা নাই। ইতিমধ্যে সিলেটের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সাথে আমাদের আলোচনা হয়েছে,উনারাও আমাদের নিশ্চিত করেছেন যে করোনা পরিস্থিতির কারনে বাজারে নিত্যপন্যের স্বাভাবিক সরবরাহে কোন প্রভাব পরবে না।গত বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবার দেশের বিভিন্ন পাইকারী বাজার হতে স্বাভাবিকের চেয়ে প্রচুর পরিমান নিত্যপন্য বোঝাই ট্রাক সিলেটের কালীঘাট সহ বিভিন্ন বাজারে এসেছে মর্মে আমাদের কাছে তথ্য এসেছে।কাজেই কাজেই বাজারে নিত্যপন্যের স্বাভাবিক সরবরাহ বন্ধ হওয়ার কোন আশংকা নাই।আমাদের গোয়েন্দা তথ্য মতে রাত দশটার পরে সিলেটের সুরমা মার্কেট থেকে কালীঘাট পর্যন্ত নিত্যপন্য বোঝাই ট্রাকের দীর্ঘ লাইন রয়েছে মর্মে জানা যায়।কাজেই বাজারে সরবরাহ কমে যাবে বলে যারা প্রয়োজনের অধিক নিত্যপন্য কিনে মজুদ করছেন আপনাদের কাছে অনুরোধ অঝথা বিভ্রান্ত হয়ে প্রতারনার শিকার হবেননা।পাইকারী বাজারের ব্যবসায়ীরা যেন কোন অঝুহাতে বাজারে স্বাভাবিক সরবরাহ বন্ধ কিংবা দাম বৃদ্ধি করতে না পারে সেজন্য গোয়েন্দা নজরদারী রয়েছে।
বাজারে নিত্যপন্যের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্ছ প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।কাজেই কোনভাবেই বিভ্রান্ত না হয়ে প্রয়োজনের অতিরিক্ত পন্য কেনা থেকে বিরত থাকবেন।

  •