ইতালিতে না ফেরার দেশে আরেক বাংলাদেশি

14

সবুজ সিলেট ডেস্ক
ইতালিতে ফরিদ খান নামে (৬০) এক বাংলাদেশি মারা গেছেন। শনিবার রাত ১০টার দিকে দেশটির ত্রিয়েসতে নামক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। (ইন্না লিল্লাহি রাজেউন)।
জানা গেছে, এক সপ্তাহ আগে তিনি জ্বর ও কাশি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর আর পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ নেই। তবে তার এ মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। তিনি পরিবার নিয়ে ইতালির উত্তরপূর্ব মনফালকান নামক এলাকায় বসবাস করতেন।
এর আগে গত শুক্রবার নোয়াখালীর জেলার আরেক বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যান। একদিনের ব্যবধানে না ফেরার দেশে আরেক বাংলাদেশি।
এদিকে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে ইতালিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ মার্চ আরও ৭৯৩ জনের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে দেশটিতে ৪ হাজার ৮২৫ জন মারা গেল। দিনের পর দিন দেশটিতে ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। বাড়ছে আতঙ্কের মাত্রাও।
করোনা ভাইরাস থেকে জনগণকে সুরক্ষা দিতে ইতালি সরকার সর্বোচ্চ চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে। ফলে জরুরি অবস্থা অব্যাহত রয়েছে। চলাফেরও সীমিত করা হয়েছে। তবু যেন মৃত্যু থামছে না। লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েই চলছে। করোনার ভয়ানক আঘাতে দিনদিন দেশটি মৃত্যু উপত্যকায় পরিণত হয়েছে।
এ দিন দেশটিতে নতুন আক্রান্ত হয়েছে ৬ হাজার ৫৫৭ জন। এর আগের দিন ৫ হাজার ৯৮৬ জন। যার ফলে দিনের পর দিন জনগণের মাঝে আতঙ্ক বেড়েই যাচ্ছে। ভয়-আতঙ্কে দিন যাপন করেছেন ইতালিয়ান, বাংলাদেশিসহ অন্যান্য অভিবাসীরা। করোনায় বাড়ছে গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা, তেমনি বাড়ছে সুস্থ রোগীর সংখ্যাও।
চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ৪২ হাজার ৬৮১। সবমিলিয়ে, দেশটিতে মোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫৩ হাজার ৫৭৮ জন।

  •