করোনায় মারা গেলেন ভারতীয় তারকা শেফ ফ্লয়েড কার্ডোজ

8

 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বিশ্বখ্যাত শেফ ফ্লয়েড কার্ডোজ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ জার্সিতে গত বুধবার তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে ভারতীয় এই শেফের বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর।

হাঙ্গার ইনকরপোরেশন হসপিটালিটি’র এক বিবৃতিতে কর্ডোজের মৃত্যুর খবর জানানো হয়েছে। এই প্রতিষ্ঠানের রন্ধন সম্পর্কীয় পরিচালক ছিলেন তিনি। বিবৃতিতে জানানো হয়, গত ১৮ মার্চ কার্ডোজের শরীরে কোভিড-১৯ পরীক্ষার ফল পজেটিভ আসে। এরপর থেকে নিউ জার্সির মাউন্টেন সাইড মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল তাকে। তার দুই সন্তান এবং স্ত্রীও কোয়ারানটিনে রয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে যাওয়ার আগে সুইজারল্যান্ডের লেস রোশে কুলিনারি স্কুলে রন্ধন সম্পর্কিত শিক্ষা গ্রহণ করেন মুম্বাইয়ে জন্ম নেওয়া কার্ডোজ। তিনি বিখ্যাত মুম্বাই রেস্টুরেন্ট, বোম্বাই ক্যানটিন, ও পেদ্রো এবং বোম্বাই সুইট শপের মালিকানার অংশীদার ছিলেন।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক সিটি রেস্টুরেন্ট ও ইউনিয়ন স্কয়ার হসপিটালিটি গ্রæপের প্রধান নির্বাহী ড্যানি মায়ারকে নিয়ে ১৯৯৮ সালে ভারতের প্রথম দিককার আধুনিক রেস্টুরেন্ট ‘তবলা’ প্রতিষ্ঠা করেন কার্ডোজ। তিনি এর নির্বাহী শেফের দায়িত্ব পালন করেন।

এরপর নিউ ইয়র্কে বেশ কয়েকটি রেস্টুরেন্ট প্রতিষ্ঠা করেন কার্ডোজ। দুটি রান্নার বইও লিখেছেন তিনি। ২০০৬ সালে বইয়ের নাম ‘ওয়ান স্পাইস, টু স্পাইন : আমেরিকান ফুড’। অপর বইটি ‘ফ্লয়েড কার্ডোজ : ফ্লেভারওয়ালা : বিগ ফ্লেভার. বোল্ড স্পাইসিস. আ নিউ ওয়ে টু কুক দ্য ফুডস ইউ লাভ’; প্রকাশিত হয় ২০১৬ সালে।

সিবিএসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কার্ডোজ বলেছিলেন, ‘আমি বায়োকেমিস্ট হতে চেয়েছিলাম। যখন আমি আর্থার হেইলির ‘হোটেল’ বই পড়লাম…এরপর থেকে আমি রান্না শুরু করি। আমি বুঝতে পারি আমি এটাতে পারদর্শী।’ সূত্র : নিউ ইয়র্ক টাইমস।

 

  •