সিলেটে রাস্তায় পড়ে থাকা বিদেশির করোনার উপসর্গ নেই

6

স্টাফ রিপোর্টার
সিলেট নগরীর মীরবক্সটুলায় হঠাত অজ্ঞান হয়ে পড়া ফিনল্যান্ডের নাগরিক মার্কোর শরীরে করোনাভাইরাসের কোনও উপসর্গ নেই। এজন্য তাকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে তিনি সেখানে চিকিৎসাধীন আছেন।
রোববার (২৯ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, অজ্ঞান অবস্থায় ফিনল্যান্ডের নাগরিক মার্কোকে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিল। তার শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে চিকিৎসকরা করোনাভাইরাসের কোনও উপসর্গ না পাওয়ায় তাকে ওসমানী হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
এর আগে শনিবার (২৮ মার্চ) সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নগরীর নয়াসড়ক পয়েন্টের রবি আউটলেটের সামনে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে আর্ক (৪৫) নামে ফিনল্যান্ডের এক নাগরিক রিকশা থেকে রাস্তায় পরে যান। পরে পুলিশ ও শহীদ শামছুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের ডাক্তাররা এসে তাকে কোয়ারেন্টাইনে নেন।
এদিকে সিলেট বিভাগে গত ২৪ ঘন্টায় কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ৮৫ জন। আর কোয়ারেন্টিন থেকে মুক্তি পেয়েছেন ২৬৮ জন। রোববার (২৯ মার্চ) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, সিলেট বিভাগে এখন ১ হাজার ৭৫৩ জন হোম বা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন। নতুনভাবে কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন ৮৫ জন। এদের মধ্যে সিলেট জেলায় ২ জন, সুনামগঞ্জে ২৯ জন, মৌলভীবাজারে ১৭ জন এবং হবিগঞ্জ জেলায় ৩৭ জন কোয়ারেন্টিনে আছেন। তাদের শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের বেশীরভাগই প্রবাসফেরত। বাকিরা তাদের পরিবার ও আত্মীয়স্বজন।

  •