ধর্মপাশার বিভিন্ন ইউনিয়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

3

ধর্মপাশা প্রতিনিধি
সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় জরুরি মানবিক সহায়তা কার্যক্রমে জেলা প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী ধর্মপাশার বিভিন্ন ইউনিয়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।
রোববার (২৯ মার্চ) সকালে ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নে ২০০, সেলবরষ ইউনিয়নে ১৬০, পাইকুরাটি ইউনিয়নে ২০০ এবং সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে ৭০ জনসহ মোট ৬৩০ জন অতিদরিদ্র ও কর্মহীন বেকারের মাঝে এসব খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়।
জানা যায়, সুনামগঞ্জের ১১টি উপজেলার ৮৮টি ইউনিয়ন ও ৪টি পৌরসভা এলাকার অতিদরিদ্র, কর্মহীন বেকার জনগণের জন্য ১০ লাখ ৬০ হাজার নগদ টাকা ও ১৩০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়। ধর্মপাশা উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ১ হাজার ৫০০ জন দরিদ্র মানুষের মাঝে বিতরণের জন্য নগদ ১ লাখ টাকা ও ১৫ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
এর মধ্যে ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নে ১৩ হাজার ৫০০, সেলবরষ ইউনিয়নে ১০ হাজার ৫০০, পাইকরাটি ইউনিয়নে ১৩ হাজার ৫০০, সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে ৪ হাজার ৫০০ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে বরাদ্দকৃত টাকার বিপরীতে ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নে ২০০ জন, সেলবরষ ইউনিয়নে ১৬০ জন, পাইকুরাটি ইউনিয়নে ২০০ জন এবং সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে ৭০ জনসহ মোট ৬৩০ জন অতিদরিদ্র ও কর্মহীন বেকারের মাঝে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আলু এবং ১ কেজি করে ডাল বিতরণ করা হয়।
ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নের বিতরণ কার্যক্রমে উপস্থিত ছিলেন, ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তালেব, প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা আব্দুর রহিম মিয়া, কৃষি কর্মকর্তা মো. নাজমুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রজেশ চন্দ্র দাস, সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. গিয়াস উদ্দিন।
এছাড়াও অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ইউপি চেয়ারম্যান মো. সেলিম আহমেদ, ইউপি সচিব তাহেরুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ইয়াসমিন আক্তার, ইউপি চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নূর হোসেন, তদারকি কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম মন্সি, পাইকুরাটি ইউনিয়নে ইউপি চেয়ারম্যান ফেরদৌসুর রহমান, তদারকি কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম ও ইউপি সদস্যবৃন্দ এবং সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নে ইউপি চেয়ারম্যান আমানুর রাজা চৌধুরী, তদারকি কর্মকর্তা তৌহিদুল ইসলাম সোহাগ, ইউপি সদস্য সজল চক্রবর্তী প্রমুখ।

  •