করোনা সন্দেহে সিলেটের তিনজনের নমুনা ঢাকায় প্রেরণ

9

 

স্টাফ রিপোর্টার
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে সিলেটের তিনজনের নমুনা সংগ্রহ করেছে জাতীয় রোগতত্ত¡, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।
রোববার (২৯ মার্চ) রাতে শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসাধীন তিনজনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক ডা. আনিসুর রহমান।
তিনি বলেন, চিকিৎসাধীন তিনজনের মধ্যে একজন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র। শুক্রবার (২৭ মার্চ) রাতে ঢাকা থেকে ফেরার পথে তার শরীরে জ্বর দেখা দেয়। সঙ্গে সর্দি-কাশিও ছিল। তাই বাড়িতে না গিয়ে রাতেই তিনি শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালে আসেন। কয়েকদিন তিনি ঢাকায় কয়েকজন ইউরোপ প্রবাসীর সংস্পর্শে ছিলেন। এছাড়া ৮০ বছরের এক বৃদ্ধের নিউমোনিয়া জ্বর ও সর্দি-কাশি থাকায় তাকে ৩ দিন আগে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে শামসুদ্দিন হাসপাতালে পাঠানো হয়। আর সিলেটের শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের কোয়ারেন্টাইনে বর্তমানে আরেকজন চিকিৎসাধীন।
তিনি আরও বলেন, তাদের তিন জনেরই শরীরের স্যাম্পল ( রক্ত, ঘাম ও মুখের লালার নমুনা) আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছে। আজ সোমবার রাতে অথবা আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে তাদের রিপোর্ট সিলেটে আসতে পারে। তবে আগের চাইতে তাদের শারীরিক অবস্থা এখন ভালো।
এদিকে সোমবার (৩০ মার্চ) সকালে করোনাভাইরাস সনাক্তের জন্য প্রয়োজনীয় মেশিন ও ৫ শত কিট এসে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে পৌঁছেছে। সকালে কিট ও মেশিন সিলেটে আসার পর থেকে ওসমানী মেডিকেল কলেজের পরিচালক, কলেজের অধ্যক্ষ, সহকারী পরিচালক, উপ-পরিচালক, পি-ডবলিউ ও হাসপাতালের সংশ্লিষ্ট বিভাগের ডাক্তার ও কর্মকর্তা কর্মচারীরা মিলা ল্যাব স্থাপনের লক্ষ্যে কাজ করছেন।
সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, করোনা ল্যাব স্থাপনের জন্য মেশিন ও যন্ত্রপাতি নিয়ে একটি টিম সকালে সিলেট এসেছে। তারা মেশিনটি টেস্ট করে ওসমানী হাসপাতালে কর্মরতদের ট্রেনিং দেবেন। এরপর আগামী সপ্তাহের রোববার অথবা সোমবারের মধ্যে আমরা ল্যাবের কার্যক্রম শুরু করতে পারবো বলে আশা করছি।

  •