সিলেটে ১ হাজার মানুষকে খাদ্যসামগ্রী দিবে নাট্য পরিষদ

10

 

মানবতার জয়গান, আর মানব কল্যাণের পথ নির্দেশনাই মূলত নাট্যকর্মীদের কাজ। আর এ কাজটি করে সব সময় প্রশংসিত সিলেটের নাট্যকর্মীরা। কিন্তু এবার তাদের এ জয়গান কেবল মঞ্চেই সীমাবদ্ধ নয়। নেমেছেন পথে। অজানা শত্রুর হাত থেকে দেশবাসীকে বাঁচাতে সকলকে ঘরে থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন, কখনো মাস্ক কিংবা স্প্রে নিয়ে নামছেন পথে। কেবল তাই না, এবার মানবতার তরে বিতরণ করবেন খাদ্যসামগ্রী। সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের উদ্যোগে ১ হাজার দিনমজুর ও দরিদ্রদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হবে। এ লক্ষেই চলছে তাদের কার্যক্রম।

সোমবার (৩০ মার্চ) বিকালে সরেজমিনে সিলেটের কবি নজরুল অডিটোরিয়ামের ভিতরে গিয়ে দেখা যায় ভিন্ন এক চিত্র। যে মঞ্চে হতো নাটকের অভিনয় কিংবা নাটকের সংলাপ, হত মানবতার জয়গান কিংবা সমাজ পরিবর্তনের আহ্বান সে মঞ্চে আজ আর কোন সংলাপ নয়, সরাসরি মানবতার কল্যাণে হচ্ছে কাজ। মানবতার কল্যাণ যাদের ভ্রত তারা ঠিকই করে যাচ্ছেন মানবতার কল্যাণে কাজ। মূল মঞ্চে চলছে খাদ্যসামগ্রী প্যাকেটের কাজ। আলু, চাল, ডাল ভরে আলাদা আলাদা প্যাকেট তৈরি করা হচ্ছে। হাতে গ্লাভস, মুখে মাস্ক লাগিয়ে বিরামহীন ভাবে প্যাকেটিং এর কাজ করছেন নাট্যকর্মীরা।

এসময় সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমদ মিশুর সাথে কথা বলে জানা যায়, বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তির কাছ থেকে অনুদান সংগ্রহ করে এসব খাদ্যসামগ্রী কিনা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ১ হাজার দিনমজুর ও দরিদ্রদের মাঝে এগুলো বিতরণ করা হবে। প্রতিজনকে ৪ কেজি চাল, ১ কেজি আলু, এক কেজি ডাল দেয়া হবে।

তিনি বলেন, দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চলমান পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি সমস্যায় নিম্ন আয়ের মানুষ। যারা দিন আনে দিন খায় তারা বেকার থাকায় মানবেতর দিন পার করছেন। তাই তাদের সাহায্যার্থে আমরা অনুদান সংগ্রহ করে এসব খাদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছি। আমরা একটি লিস্ট করে নিজ উদ্যোগে তাদের হাতে হাতে পৌঁছে দিবো।

উল্লেখ্য, দেশে করোনা পরিস্থিতির শুরু থেকে নানা কার্যক্রমের মাধ্যমে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন সিলেটের নাট্যকর্মী ও সংস্কৃতিকর্মীরা। মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ, জনগণকে বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হতে পরামর্শ দেয়াসহ করোনা মোকাবেলায় সচেতন করার লক্ষ্যে সকাল সন্ধ্যা রাস্তায় কাজ করছেন তারা।বিজ্ঞপ্তি

 

  •