শরীয়তপুরে আইসোলেশনে যুবকের মৃত্যু

6

 

সবুজ সিলেট ডেস্ক

করোনাভাইরাস সন্দেহে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে থাকা এক যুবকের (৩৪) মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার মৃত্যু হয়। ওই যুবক নড়িয়া উপজেলার বাসিন্দা ছিলেন।

শরীয়তপুর সদর হাসপাতাল সূত্র জানায়, ওই যুবকের যক্ষ্মা ছিল। শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন। যেহেতু শ্বাসকষ্ট, জ্বর ও কাশি ছিল, তাই করোনাভাইরাস থাকতে পারে– এমন ধারণা করে তাকে আইসোলেশনে রাখা হয়। ভর্তির পর থেকেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। একপর্যায়ে তিনি মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মারা যান।

শরীয়তপুরের সিভিল সার্জন ডা. আবদুল্লাহ আল মুরাদ বলেন, এর আগে গত ১৯ মার্চ নড়িয়া উপজেলা নিবাসী রফিকুল ইসলাম শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ২৩ মার্চ পযর্ন্ত চিকিৎসাধীন ছিলেন। তখন তার স্বাস্থ্যের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হলে টিবি (যক্ষা) ধরা পড়েছিল।

চিকিৎসকের পরামর্শে তিনি বাড়িতে অবস্থান করে নিয়মিত ওষুধ সেবন করে আসছিলেন। তারপরও করোনার উপসর্গ থাকায় ওই মৃত রোগীর শরীরের নমুনা সংগ্রহ করে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) পাঠানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের বলেন, মৃত যুবক যক্ষার রোগী ছিলেন। এর আগেও তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি গিয়েছেন। বাড়িতে বসে ডাক্তারের পরামর্শ মতে নিয়মিত ওষুধ সেবন করে আসছিলেন।

  •