নবীগঞ্জে সাংবাদিকদের ওপর হামলায় মামলা, চেয়ারম্যান পলাতক

6

 

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে তিন সাংবাদিককে মারধরের ঘটনায় ইউপি চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান হারুনকে প্রধান আসামি করে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাত ১২টার দিকে সাংবাদিক মুজিবুর রহমান বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়ের এর পর পরই পুলিশ চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করতে মিনাজপুর গ্রামসহ বিভিন্ন স্থানে চিরুনী অভিযান চালায়।

চেয়ারম্যান ছাড়াও মামলায় আরও ১০ জনের নাম উল্লেখ করে ২০-২৫ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে রাতেই অভিযান চালিয়ে পুলিশ মামলার আসামি অরবিট হসপিটালের ম্যানাজার খালেদ আহমেদ নামের এক হামলাকারীকে গ্রেপ্তার করেছে। এর আগে একাধিক স্থানে অভিযান চালিয়েও প্রধান আসামী মহিবুর রহমান হারুনকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।

উল্লেখ্য, আউশকান্দি ইউনিয়নে নিম্ন আয়ের মানুষদের ১০ কেজি করে চাল দেওয়ার কথা থাকলেও ইউপি চেয়ারম্যান তাদের দেন ৫ কেজি করে। এ নিয়ে গত ৩০ মার্চ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘আসুন অসহায় দিন মজুরদের মনের কথা শুনি’ শিরোনামে এক লাইভে সাধারণ মানুষের বক্তব্যসহ অনিয়মের বিষয়টি তুলে ধরেন সাংবাদিক শাহ সুলতান আহমদ। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত বুধবার বিকেলে ২০-২৫ জন সন্ত্রাসী নিয়ে দেশীয় অস্ত্র সহকারে আউশকান্দি বাজারে শাহ সুলতান আহমেদের ওপর সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়। এ সময় ইউপি চেয়ারম্যান মুহিবুর রহমান হারুন নিজেই ক্রিকেট খেলার ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে আহত করেন সুলতানকে। এ খবর পেয়ে তাকে উদ্ধার করতে গেলে সাংবাদিক এম মুজিবুর রহমান ও বুলবুল আহমেদকেও মারধর করে সন্ত্রাসীরা।

 

  •