হাসপাতাল থেকে পালানো সেই করোনা রোগী উদ্ধার

31

সবুজ সিলেট ডেস্ক
ঢাকার সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যাওয়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক নারীকে রাজবাড়ী থেকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে পাঠিয়েছে সদর থানা পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিভাগ।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) দিবাগত রাত সাড়ে ৩টা থেকে রাজবাড়ী সদর উপজেলার দাদশী ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে পুলিশ তাদের ঘিরে রাখে।

রাজবাড়ী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার বলেন, গত ৪ এপ্রিল (শনিবার) ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে করোনাভাইরাস সন্দেহ হলে পরীক্ষায় তার শরীরে করোনাভাইরাসের জীবানু ধরা পড়ে। পরবর্তীতে তাকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে পালিয়ে রাজবাড়ীর দাদশী ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে চলে যান তিনি। পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে রাত ৩টার দিকে দাদশী ইউনিয়নের ওই নারী ও তার স্বামীর বাড়ি ঘিরে রাখে।

আজ বুধবার (৮ এপ্রিল) ভোর ৫টার দিকে রাজবাড়ী সিভিল সার্জন ও রাজবাড়ী সদর থানা পুলিশ করোনায় আক্রান্ত নারী ও তার স্বামীকে রাজবাড়ী সদর হাসপাতালের আইসোলেশন সেন্টারে ভর্তি করেছেন।

রাজবাড়ী সিভিল সার্জন ডা. মো. নুরুল ইসলাম বলেন, ওই নারীর শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে। তিনি ঢাকায় সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। গতকাল সেখান থেকে পালিয়ে দাদশীর নিজ বাড়িতে চলে যান। পুলিশ মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টা থেকে সোনিয়া ও তার স্বামীর বাড়ি ঘিরে রাখে। পরে পুলিশ ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা ওই নারী ও তার স্বামীকে উদ্ধার করে রাজবাড়ী আইসোলেশন সেন্টারে ভর্তি করে। আমি উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলছি। তাদের নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

বুধবার দুপুরে রাজবাড়ী সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাঈদুজ্জামান খান বলেন, ওই নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এ তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে। সুতরাং আমরা দাদশী ইউনিয়নের তার বাড়িসহ বেশ কিছু এলাকা লকডাউনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি।

  •