নারায়ণগঞ্জ থেকে মতলবে আসা নতুন ১৪৯ জন কোয়ারেন্টিনে

7

নারায়ণগঞ্জ থেকে চাঁদপুরের মতলব দক্ষিণ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে আসা ১৪৯ ব্যক্তিকে নতুন করে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। করোনার সংক্রমণ এড়াতে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে তাঁদের ওই কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। দু-তিন দিন ধরে নৌ ও সড়কপথে এসব লোক উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় প্রবেশ করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ফাহমিদা হক প্রথম আলোকে বলেন, প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা এড়িয়ে দুদিন ধরে নারায়ণগঞ্জ থেকে ১৪৯ ব্যক্তি তাঁর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার বিভিন্ন গ্রামে প্রবেশ করেন। এদের মধ্যে ৪৮ জন প্রবেশ করেন উপজেলার মেহরণ গ্রামেই। করোনাভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে তাঁদের সবাইকে বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে ওই গ্রামের একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন করে রাখা হয়। এ ছাড়া বাকি ১০১ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। মোট ১৪৯ ব্যক্তিকে নতুন করে হোম ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হলো।

ফাহমিদা হক আরও বলেন, গত মার্চে এ উপজেলার ২ হাজার ১৯৭ ব্যক্তি বিদেশ থেকে বাড়ি ফেরেন। এর মধ্যে বিভিন্ন ধাপে ৪৮৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। বাকি বিদেশফেরতদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। গোটা জেলা লকডাউন করায় বিদেশফেরত কোনো ব্যক্তি এবং দেশের বিভিন্ন এলাকার লোকজন যাতে এ উপজেলায় ঢুকতে না পারেন কিংবা এ উপজেলা থেকে যাতে কেউ অন্য জায়গায় যেতে না পারেন, সে জন্য গ্রামে গ্রামে তল্লাশি চৌকি ও পাহারা বসানো হয়েছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পুলিশের সদস্যরা এসব কাজ তদারকি করছেন।

  •