যুক্তরাষ্ট্র মিশিগানে আরো করোনা ভাইরাস পরীক্ষা কেন্দ্র হচ্ছে, মিশিগানের রয়্যাল ওক পুলিশ প্রধান করোনায় আক্রান্ত

10

কামরুজ্জামান (হেলাল) যুক্তরাষ্ট্র:

মিশিগান সরকার রাজ্যজুড়ে অনেকগুলো করোনা ভাইরাস পরীক্ষাগার স্থাপন করেছে। এছাড়া অতিরিক্ত বাণিজ্যিক ল্যাবও স্থাপন করা হয়েছে। এর ফলে পরীক্ষা ৪০ শতাংশ বাড়বে। গভর্ণর গ্রেচেন হুইটমার নতুন নয়টি এলাকায় পরীক্ষা কেন্দ্র খোলার কথা ঘোষণা করেছেন। সোমবার থেকে এসব কেন্দ্রে পরীক্ষা শুরু হবে। নতুন পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে ডেট্রয়েট এবং ফ্লিন্ট রয়েছে যেখানে যথাক্রমে সাড়ে ৭ শ’ ও আড়াইশ’ মানুষের পরীক্ষা হবে। মিশিগানের মুখ্য চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. জোনেইগ খালদুন জানান, মিশিগানের কোথায় কোথায় কোভিড-১৯ রোগী আছে তা জানতে পরীক্ষাই গুরুত্বপূর্ণ। এটা আমাদের জনস্বাস্থ্য সম্পর্কেও ধারণা দেবে। তিনি জানান, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা যেমন বাড়িতে থাকা এবং একজন থেকে আরেকজনের ৬ ফুট দূরত্বে থাকার বিষয়টি মেনে চললে করোনা ভাইরাসের বিস্তার লোপ পাবে। এছাড়া রয়্যাল ওক পুলিশের প্রধান নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। পুলিশ প্রধান কোরিগান ও’ ডনোহুই তৃতীয় কোনো পুলিশ প্রধান যিনি এই ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন। এর আগে ডেট্রয়েটের পুলিশ প্রধান জেমস ক্রেইগ এবং হাইল্যান্ড পার্ক পুলিশ প্রধান হিল নেপোলিয়ান আক্রান্ত হন। পুলিশ প্রধান কোরিগান ও’ ডনোহুই এক ই-মেইল বার্তায় অন্যান্য কর্মকর্তাদের জানিয়েছেন যে, তিনি সুস্থ বোধ করছেন। তার মধ্যে এখন কোনো উপসর্গ নেই। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় তার চিঠি পোস্ট করেছেন। তার আক্রান্তের খবরে অনেকেই নিজ উদ্যোগে করোনার পরীক্ষা করাচ্ছেন। পুলিশ প্রধানের বেশি সংস্পর্শে যিনি থাকেন সেই উপ-প্রধান মাইকেল ফ্রেইজারের পরীক্ষায় নেগেটিভ এসেছে। ওয়েইন এবং অকল্যান্ড দুটিই করোনা ভাইরাসের হটস্পট হিসেবে পরিচিত। পুলিশ প্রধান কোরিগান ও’ ডনোহুই বলেছেন, তিনি পুরোপুরি সুস্থ না হওয়া পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন। সবাইকে তার জন্য প্রার্থনার আহ্বান জানিয়েছেন। মৃতের সংখ্যার নিরিখে ইতালিকে ছাপিয়ে গেল আমেরিকা। নতুন করে ১৩৮৮ জনের প্রাণহানিতে এক ধাক্কায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২০ হাজার ১৩৫। ইতালিতে মৃত্যু তুলনায় কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট মৃতের সংখ্যা এ দেশে ১৯ হাজার ৪৬৮।