শ্রমিক সংকট, সুনামগঞ্জে কেটে দিচ্ছে আনসার ও ভিডিপি

13

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
করোনাভাইরাসের কারণে শ্রমিক সংকটে পড়া সুনামগঞ্জের কৃষকদের ধান কেটে দিচ্ছে আনসার ও ভিডিপি। জেলা কমান্ডান্ট এনামুল খাঁন সুনামগঞ্জ জেলার ৩৩টি হাওরের এবং সমতলের ২ লাখ ১৯ হাজার ৩০০ হেক্টর জমির বোরো ধান কাটার লক্ষ্য নিয়ে ১১টি উপজেলা থেকে তরুণ আনসার-ভিডিপি সদস্যদের নিয়ে ৪ হাজার জনের তালিকা প্রস্তুত করে জেলা প্রশাসনের নিকট হস্তান্তর করেন।

এ তালিকা থেকে এক হাজার জন বাছাইকৃত আনসার ভিডিপি সদস্যদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে গত ২১ এপ্রিল জামালগঞ্জ, জগন্নাথপুর এবং বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় এবং ২২ এপ্রিল সুনামগঞ্জ সদর, দিরাই, জগন্নাথপুর এবং বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় বোরো চাষীদের জমিতে ধান কাটা হয়। আনসার-ভিডিপি সদস্যদের অংশগ্রহণে ধান কাটার এ কর্মযজ্ঞ তদারকি করেন সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা, উপজেলা আনসার ও ভিডিপি কর্মকর্তা এবং স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান।

আনসার ও ভিডিপির উপ-পরিচালক (যোগাযোগ)ও গণসংযোগ কর্মকর্তা (অতি: দায়িত্ব) মেহেনাজ তাবাস্সুম রেবিন জানান, চলতি মৌসুমে সারা দেশেই বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলার হাওড়ে এবং সমতলে ২ লাখ ১৯ হাজার ৩০০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের চাষ হয়েছে এবার। অন্যান্য বছরে দেশের উত্তরাঞ্চলের জেলা গুলো থেকে এ ধান কাটার জন্য শ্রমিক আসত। কিন্তু এবার বিশ্বব্যাপী বিস্তার লাভ করা কোভিড-১৯ সংক্রমণের ঢেউ বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়ায় দেশের প্রায় সকল জেলা লক ডাউন করা হয়েছে। ফলে অন্য জেলার শ্রমিকরা এবার সুনামগঞ্জ জেলায় আসতে না পারায় বোরো চাষিরা সীমাহীন উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে।

তাছাড়া সম্প্রতি কয়েক দিনের বৃষ্টিপাত ও পাহাড়ি ঢলের আশু সম্ভাবনায় কৃষকদের উৎকণ্ঠা বহুগুণে বেড়ে যায়। হাওড় অঞ্চলের বোরো চাষিগণ শ্রমিক সংকটের চিন্তায় দিশেহারা হয়ে পড়ে। এ অবস্থায় আগামী দিনের খাদ্য সংকট ও মন্দা কাটাতে মাঠ পর্যায়ের কৃষক তথা বোরো চাষিদের ধান কেটে ঘরে তুলে দিতে উদ্যোগ নিয়েছেন আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সিলেট রেঞ্জের পরিচালক, মো. রফিকুল ইসলাম। আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল কাজী শরীফ কায়কোবাদ, এনডিসি, পিএসসি, জি এর নির্দেশনায় তিনি সিলেট রেঞ্জের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রায় ৪ হাজার আনসার ভিডিপি সদস্যদের এ কাজে উদ্বুদ্ধ করেন। তাঁর সরাসরি তত্ত্বাবধানে সুনামগঞ্জের জেলা কমান্ডান্ট এনামুল খাঁন এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের সাথে সমন্বয় করে ধান কাটা কার্যক্রমে নেতৃত্ব দেন।

উল্লেখ্য, সুনামগঞ্জ জেলার পাশাপাশি সিলেট জেলার ১২টি উপজেলায় ৮০ হাজার ৫৬৫ হেক্টর, হবিগঞ্জ জেলার ৬টি উপজেলায় ৪৬ হাজার ৩৬০ হেক্টর এবং মৌলভীবাজার জেলার ২টি উপজেলায় ৫৩ হাজার ৫৩০ হেক্টর জমিতে চাষ করা বোরো ধান ঘরে তুলতে ধান কাটার জন্য আনসার-ভিডিপি সদস্যদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

  •