বেঁচে আছেন কিম

18

সবুজ সিলেট ডেস্ক
দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইনের একজন শীর্ষ নিরাপত্তা উপদেষ্টা বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন জীবিত এবং সুস্থ আছেন। কয়েক দিন ধরে বিশ্ব গণমাধ্যমে উত্তর কোরিয়ার এই নেতার শারীরিক অসুস্থতা ও মৃত্যুর গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ার পর সিউল এই তথ্য জানাল।

গত ১৫ এপ্রিল উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা ও কিমের দাদা কিম ইল সাংয়ের জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে অনুপস্থিতি ঘিরে এই গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে। দেশটির রাজনৈতিক ক্যালেন্ডারে কিম জং উনের দাদার জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানকে অত্যন্ত আড়ম্বরপূর্ণভাবে এবং গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে উদযাপন করা হয়।

রোববার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে মুন জায়ে ইনের জাতীয় নিরাপত্তাবিষয়ক বিশেষ উপদেষ্টা মুন চাং-ইন বলেছেন, কিম জং উন জীবিত এবং সুস্থ আছেন। এ ব্যাপারে আমাদের সরকারের কাছে দৃঢ় তথ্য আছে।

তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়ার পূর্বাঞ্চলীয় রিসোর্ট শহর ওনস্যানে অবস্থান করছেন কিম জং উন। গত ১৩ এপ্রিল থেকে তিনি সেখানে আছেন। এখন পর্যন্ত দেশটিতে কোনো ধরনের সন্দেহজনক কার্যক্রম দেখা যায়নি।

গত ১১ এপ্রিল শেষবারের মতো দেশটির কমিউনিস্ট পার্টির পলিটব্যুরোর এক বৈঠকে দেখা যায় কিম জং উনকে। ওই দিন তিনি দেশটির একটি বিমান প্রতিরক্ষা ঘাঁটিতে যুদ্ধবিমান পরিদর্শন করেন। সেদিনের পর থেকে এখন পর্যন্ত তাকে আর দেখা না যাওয়ায় তার অসুস্থ এবং মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়ে।

দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়, উত্তর কোরিয়ায় এখন পর্যন্ত আমরা কোনো ধরনের অস্বাভাবিক কিংবা বিশেষ কর্মকাণ্ড নিশ্চিত হতে পারিনি।

গত সপ্তাহে দক্ষিণ কোরিয়াভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি এনকের এক প্রতিবেদনে কিম জং উনের কার্ডিওভাসকুলারের অপারেশন করা হয়েছে বলে খবর দেয়। অজ্ঞাত সূত্রের বরাত দিয়ে এই প্রতিবেদনে বলা হয়, অপারেশনের পর উত্তর কোরিয়ার নেতার অবস্থা আশঙ্কাজনক। অতিরিক্ত ধূমপান, অবসাদ এবং স্থুলতার কারণে জরুরি অপারেশন করা হয় তার।

পরে মার্কিন গোয়েন্দাদের বরাত দিয়ে সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কিম জং উনের অবস্থা মারাত্মক আশঙ্কাজনক। মার্কিন গোয়েন্দারা উত্তর কোরিয়ার নেতার শারীরিক পরিস্থিতির ওপর গভীর দৃষ্টি রাখছেন।

  •