কমলগঞ্জে চা শ্রমিক সন্তানের ‘আত্মহত্যা’

8

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের মাধবপুর ইউনিয়নের নুরজাহান চা বাগানের এক চা শ্রমিক সন্তান গাছের সাথে দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

বুধবার (২৯ এপ্রিল) সন্ধ্যা রাত ৭টায় নুরজাহান চা বাগানের ১৪ নম্বর প্লান্টেশন এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

মারা যাওয়া বিষ্ণু দাশ (২৫) নুরজাহান চা বাগানের চা শ্রমিক চন্দন দাশের ছেলে।

কমলগঞ্জ থানা ও নুরজাহান চা বাগান সূত্রে জানা যায়, তার বাবা চন্দন দাশ নুরজাহান চা বাগানের নিবন্ধিত চা শ্রমিক হলেও বিষ্ণু দাশ পার্শ্ববর্তী খাসিয়া পুঞ্জিতে দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কাজ করতো। চা শ্রমিকরা ১৪ নম্বর প্লানেন্টশন এলাকার একটি গাছের ডালে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ দেখে। বিষয়টি কমলগঞ্জ থানাকে অবহিত করলে রাতেই পুলিশ গাছ থেকে লাশটি নামিয়ে সুরতহাল তৈরি করে থানায় নিয়ে আসে। বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।

নুরজাহান চা বাগানের ব্যবস্থাপক রুবিন জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষ্ণু দাশের বাবা চন্দন দাশ এ চা বাগানের নিবন্ধিত চা শ্রমিক। বিষ্ণু দাশ পার্শ্ববর্তী একটি খাসিয়া পুঞ্জিতে দৈনিক মজুরি ভিত্তিতে কাজ করতো। তবে কি কারণে সে আত্মহত্যা করেছে তার কোনও কারণ তার পরিবার বলতে পারছে না।

কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আরিফুর রহমান নুরজাহান চা বাগানে সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আত্মহত্যার কোনও কারণ জানা যায়নি। আপাতত থানায় একটি অপমৃত্যু দায়ের হবে। আর ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন আসার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

  •