শেষ ২৪ ঘন্টায় ২হাজারেরও বেশি মৃত্যু, করোনামুক্তির পথ খুঁজছে আমেরিকা

33

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
ফের মৃত্যু হল ২০০০ জনের বেশি মানুষের। রোজ মৃত্যু গোনা খোলামখুচির তালিকায় চলে যাচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের। কোনওদিন ২২০০, কোনওদিন ১৫০০। আর এবার সংখ্যাটা ২০০০ -এর কিছু বেশি। করোনার জেরে মৃত্যু মিছিলে বিরাম নেই আমেরিকায়।বুধবারের হিসেবেই সংখ্যাটা ৬০ হাজার টপকে ছিল। বৃহস্পতিবারের মৃত্যু সংখ্যা সামনে আসার পর সেই সংখ্যা দাঁড়িয়েছে প্রায় ৬৩ হাজার। জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির তথ্য অনুসারে এই সংখ্যা সামনে এসেছে।
পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ট্রাম্পের দেশে ১০ লক্ষ ৯ হাজারের বেশি আক্রান্তের মধ্যে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ১ লক্ষ ২৮ হাজারের কিছু বেশি। বিশ্বজুড়ে যত মানুষের মৃত্যু হয়েছে, তার মধ্যে চার ভাগের এক ভাগ মানুষ শুধুমাত্র আমেরিকায় মারা গিয়েছে।
আমেরিকার পরেই মৃত্যু মিছিলের তালিকায় নাম লিখিয়েছে, ইতালি। এরপরেই তালিকায় রয়েছে স্পেন ও ফ্রান্সের নাম। তারপরেই রয়েছে ব্রিটেন। তবে এই সব দেশের চেয়ে মৃত্যু সংখ্যায় আড়াই গুন এগিয়ে রয়েছে আমেরিকা।
পরিসংখ্যান জানাচ্ছে, দেশের মধ্যে নিউ ইয়র্কের অবস্থা সবচেয়ে ভয়াবহ। সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লক্ষ ৪ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ১৮ হাজার ৩২১ জনের। এরপরেই রয়েছে নিউজার্সি। সেখানে আক্রান্ত ১লক্ষ ১৯ হাজার মানুষ। সেখানে মৃতের সংখ্যা ৭ হাজারের অধিক। বৃহস্পতিবারের তথ্য অনুযায়ী এই শহর ভিত্তিক রিপোর্ট সামনে এসেছে।
ক্যালফোর্নিয়াতে আক্রান্ত প্রায় ৫০ হাজার মানুষ। মৃতের সংখ্যা এখনও ২০০০ ছুঁতে পারেনি। টেক্সাসে ততটা দাপট নেই করোনার। এখানে মৃতের সংখ্যা ৭৮২। মিচিগানে আক্রান্তের তুলনায় মৃত্যুর হার বেশি। সেখানে ৪১ হাজার আক্রান্তের মধ্যে ৩,৭০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।
সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ব্যাপার হল, প্রতিদিন মৃত্যু মিছিল গড়পড়তা ভাবে বেড়েই চলেছে। থামার বিন্দুমাত্র লক্ষ্মণ নেই। মঙ্গলবার যেখানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ২ হাজার ২০০ জনের। বুধবার সেই সংখ্যাটাই দাঁড়াল ২ হাজার ৫০২ এ। আবার বৃহস্পতিবার সেখ্যানে মৃত্যু হয়েছে ২০০০ এর বেশি মানুষের।

  •