সিলেটে সংগঠিত হচ্ছে আমার বাংলাদেশ (এবি) পার্টি, কেন্দ্রীয় কমিটিতে ১১ জন

46

স্টাফ রিপোর্টার::
সিলেটে রাজনীতির মাঠে সংগঠিত হচ্ছে জামায়াতে ইসলামীর ‘সংস্কারপন্থীদের’ নতুন রাজনৈতিক সংগঠন ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি’(এবি পার্টি)। সিলেটে প্রায় এক বছর ধরে তৎপরতা চালাচ্ছে তারা। ইতোমধ্যে সিলেট মহানগর ও জেলার ৬টি উপজেলায় সাংগঠনিক কার্যক্রমও শুরু করেছে তারা। মূলত একসময় সিলেটের জামায়াতে ইসলামী এবং ছাত্রশিবিরের রাজনীতির সঙ্গে সংশ্লিষ্টরাই সিলেটে এবি পার্টিকে সংগঠিত করতে ভূমিকা রাখছেন।জানা গেছে, গত বছরের এপ্রিলে ইসলামী ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মজিবুর রহমান মঞ্জুকে সমন্বয়ক করে জামায়াতে ইসলামীর সংস্কারপন্থীদের নিয়ে গড়ে তোলা হয় ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ নামে রাজনৈতিক সংগঠন। সেসময় তাদের সঙ্গে যোগ দেন সিলেট অঞ্চলের জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্র শিবিরের বেশ কিছু নেতা। পরে সংগঠনটির সমন্বয়ক মজিবুর রহমান সিলেটে এসে নগরের মিরাবাজারের একটি হোটেলে ইফতার মাহফিলও করেন। গত সেপ্টেম্বরে সিলেটে ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ সমন্বয় কমিটির গঠন করা হয়। সেই কমিটির উদ্যোগে গত বছরের নভেম্বর সিলেটে নাগরিক সংলাপে অংশ নেন ‘জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশ’ সমন্বয়ক মজিবুর রহমানসহ সংগঠনটির শীর্ষ নেতারাও। এরপর সিলেটের ছয় উপজেলায় সংগঠনটির সমন্বয় কমিটিও গঠন করা হয়।
গত ২ মে ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে জন আকাঙ্ক্ষার বাংলাদেশকে রিসার্চ উইং হিসেবে রেখে ‘আমার বাংলাদেশ পার্টি (এবি পার্টি)’ নামের নতুন রাজনৈতিক দল গঠন ঘোষনা দেয়া হয়। নতুন দল এবি পার্টির আহবায়ক হয়েছেন সাবেক সচিব এ এফ এম সোলায়মান চৌধুরী ও সদস্য সচিব হয়েছেন মজিবুর রহমান মঞ্জু । এছাড়া গঠন করা হয় ২২২ সদস্যের কমিটি। কমিটিতে স্থান পেয়েছেন সিলেট বিভাগের ১১ জন। তারা হলেন যুগ্ম অাহবায়ক এম হারুনুর রশীদ (হবিগঞ্জ), বিভাগীয় সহকারী সদস্য সচিব মো. ওমর ফারুক (সিলেট) ও মোকাম্মেল হোসেন রবিন (হবিগঞ্জ), কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হোসাইনুর রহমান লায়েস (সিলেট), এম তানজিল হাসান (সিলেট), জাহাঙ্গীর অাহমদ (সিলেট), শিব্বির আহমদ ফরহাদ (হবিগঞ্জ), খলিলুর রহমান (সিলেট), আবদুল কাহহার আকন্দ (সিলেট) ও মিসবাহ মনজুর (সিলেট, দক্ষিণ আফ্রিকা প্রবাসী)।
এ বিষয়ে এবি পার্টির কেন্দ্রীয় সহকারী সদস্য সচিব ও সিলেটের সমন্বয়ক ওমর ফারুক জানান, আমরা এবি পার্টিতে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। আগে আমরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে সদস্য হওয়ার দাওয়াত দিতাম। এখন অনেকে সদস্য হতে যোগাযোগ করছেন।
তিনি বলেন, আমরা এখন সদস্য সংগ্রহ করছি। সিলেটের ৬ উপজেলায় আমাদের কমিটি হয়েছে। বাকিগুলোতেও করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে কমিটি হবে । নিজেদের সাবেক সংগঠন জামায়াতে ইসলামী থেকে কোনও বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন না বলে দাবি করেন তিনি।