খাদিমপাড়ায় এক ব্যাক্তিকে ছুরিকাঘাত, গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে দিল জনতা

7

স্টাফ রিপোর্টার
সিলেট শহরতলীর খাদিমপাড়া ইউনিয়নের খিদিরপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনার জের ধরে আবিদুর রহমান আব্দুল (৪০) নামের এক ব্যাক্তিকে ছুরিকাঘাত করে মৃত আমিন উল্লাহর ছেলে শিরিন (৪৩)। পরে স্থানীয় জনতা শিরিনকে ধরে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেন।

মঙ্গলবার দুপুরে খিদিরপুর গ্রামের প্রবেশ মুখে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রামের বাসিন্দা ও ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী খাদিমপাড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মাজহারুল ইসলাম ডালিম জানান, খিদিরপুর গ্রামের প্রবেশ মুখে একটি গেইট নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছেন এলাকাবাসী। গেইটের ঢালায় হওয়ায় বাঁশ দিয়ে রাখা হয়েছে। এতে বড় গাড়িগুলো গ্রামে প্রবেশ করতে পারছে না। গ্রামবাসী বড় গাড়ি বাইরে রেখেই গ্রামে প্রবেশ করছেন। মঙ্গলবার দুপুরে গ্রামের মৃত আমিন উল্লাহর ছেলে শিরিন (৪৩) গাড়ি নিয়ে বের হতে চায়। তখন গেইটের সামনে থাকা আবিদুর রহমান আব্দুল তাকে বলে যে গেইটে ঢালাই দেয়া হয়েছে, বাঁশ সড়ানো যাবে না। এ কথা বলার সাথে সাথেই শিরিন গাড়ি থেকে নেমে পাশের দোকান থেকে একটি ধারালো চাকু নিয়ে আবিদুর রহমান আব্দুলকে ছুরিকাঘাত করে। এসময় তার বাম হাতে কনুইর পাশে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়। সে বর্তমানে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

তিনি আরো জানান, ঘটনার সাথে সাথে গ্রামের লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে এসে শিরিনকে গণপিটুনি দিয়ে একটি কক্ষে বন্দি করে রাখেন। পরে ‍তারা পুলিশকে খবর দিয়ে শাহপারণ থানার এসআই আব্দুস সালামের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল তাকে হামলায় ব্যবহৃত চাকুসহ আটক করে নিয়ে যান।

  •