ঈদে খুলছে না কোনো স্বর্ণের দোকান

14

সবুজ সিলেট ডেস্ক
মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত-মৃতের সংখ্যা প্রতিদিনই উদ্বেগজনক হারে বাড়লেও আগামী ১০ মে থেকে সীমিত পরিসরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান ও শপিংমল খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছে সরকার। চলমান এ পরিস্থিতির উন্নতি না হলে রমজানে খুলবে না দেশের অন্যতম সেরা শপিংমল বসুন্ধরা সিটি শপিং কমপ্লেক্স ও যমুনা ফিউচার পার্ক।

এই দুই জায়ান্ট শপিংমলের এমন সিদ্ধান্তের পর এবার রোজায় কোনো স্বর্ণের দোকান না খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। বৃহস্পতিবার (৭ মে) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রাণঘাতী করােনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) প্রাদুর্ভাব মােকাবিলায় বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতির (বাজুস) কার্যনির্বাহী কমিটি টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে জরুরি মতবিনিময় সভার আয়ােজন করে। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে ভাইরাসের সংক্রমণ রােধে দোকান মালিক, কর্মচারী ও ক্রেতাসাধারণের স্বাস্থ্যঝুঁকির কথা চিন্তা করে ঈদুল ফিতর পর্যন্ত সব জুয়েলারি দোকান বন্ধ রাখার পক্ষে সিদ্ধান্ত হয়।

এতে আরও বলা হয়, এক্ষেত্রে সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে, নিজ নিজ মার্কেট কমিটি/স্থানীয় সরকারের সিদ্ধান্ত মােতাবেক কোনো জুয়েলার্স যদি সীমিত পরিসরে তার ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খােলা রাখে, তবে তার সব দায়ভার উক্ত জুয়েলার্সকে বহন করতে হবে। এ-সংক্রান্ত বিষয়ে যদি কোনো জটিলতার সৃষ্টি হয় তবে বাজুস তার দায়িত্ব গ্রহণ করবে না।

একই সঙ্গে প্রাচীন ও সম্ভাবনাময়ী এই জুয়েলারি শিল্পকে বাঁচাতে ক্ষুদ্র, মাঝারি, সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী ও স্বর্ণশিল্পীদের (কারিগর) জন্য প্রধানমন্ত্রী ঘােষিত অর্থ প্রণােদনার দ্রুত কার্যকরের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি বিশেষভাবে অনুরােধ জানানাে হয়।

  •