করোনাকালেও ‘এক্সট্রাকশন’ ছবির আয় ৬৮০ কোটি টাকা!

12

সবুজ সিলেট ডেস্ক
এরই মধ্যে বিশ্বব্যাপী ঝড় তুলেছে খ্যাতনামা অভিনেতা ক্রিস হেমসওর্থ অভিনীত ‘এক্সট্রাকশন’ ছবিটি। মুক্তির চার সপ্তাহে বিশ্বব্যাপী নয় কোটি দর্শক দেখেছেন ছবিটি। এর মাধ্যমে নেটফ্লিক্সে মুক্তি পাওয়া ছবিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি দর্শক টানার রেকর্ড গড়ার পথে রয়েছে ছবিটি।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদেন বলা হয়েছে, ২০১৯ সালে প্রকাশিত হলিউড রিপোর্টারের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে গড় টিকেট মূল্য নয় মার্কিন ডলারের বেশি। সেই হিসেবে এক মাসে বক্স অফিসে ‘এক্সট্রাকশন’-এর আনুমানিক আয় ৮১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৬৮০ কোটির বেশি (এক মার্কিন ডলার সমান ৮৪ টাকা হিসাবে)।

জনপ্রিয় মার্কিন সাময়িকী ফোর্বসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০ সালের গ্রীষ্মে একমাত্র ব্লকব্লাস্টার হতে পারে ‘এক্সট্রাকশন’। করোনাভাইরাসের কারণে সৃষ্ট মহামারিতে বিশ্বব্যাপী প্রেক্ষাগৃহগুলো বন্ধ রয়েছে। আর এর সুফল পাচ্ছে অনলাইন প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পাওয়া ছবিগুলো।

ফোর্বস জানায়, নেটফ্লিক্সের অন্য ছবিগুলোর আয়—মাইকেল বের ‘আন্ডারগ্রাউন্ড’ (৮৩ মিলিয়ন), সান্দ্রা বুলকের ‘বার্ড বক্স’ (৮০ মিলিয়ন), হেনরি কেভিলসের ‘দ্য উইচার’-এর প্রথম মৌসুম (৭৬ মিলিয়ন) ও অ্যাডাম স্যান্ডলার-জেনিফার অ্যানিস্টোনের রোমান্টিক কমেডি ‘মার্ডার মিস্ট্রি’ (৭৩ মিলিয়ন)।

এর আগে নেটফ্লিক্সের এই সিনেমাটির সিক্যুয়েলের বিষয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন রুশো। “এক্সট্রাকশন টু’ লেখার ক্ষেত্রে আমার সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হয়েছে। গল্পটি কেমন হতে পারে, সে বিষয়ে আমরা গঠনমুলক পর্যায়ে আছি,” বলেন রুশো।

রুশো আরো বলেন, ‘সময়ের দিক দিয়ে গল্পটি সামনের দিকে যাবে নাকি পেছনের দিকে যাবে, এ ব্যাপারে আমরা এখনো সিদ্ধান্তে আসিনি।’ ডেডলাইনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

এ ছাড়া রুশো জানান, চিত্রনাট্যের শুরুতেই তিনি হেমসওর্থকে রাখবেন। হেমসওর্থ সম্প্রতি ‘এক্সট্রাকশন’-এর পরবর্তী পর্বে যেকোনো উপায়ে অভিনয়ের ব্যাপারে নিজের রোমাঞ্চকর আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।

‘এক্সট্রাকশন’ পরিচালনা করেছেন স্যাম হারগ্রেভ। এতে অভিনয় করেছেন টেইলর রাকের ভূমিকায় ক্রিস হেমসওর্থ, রুদ্রাক্ষ জয়সালের ভূমিকায় অভি, ডেভিড হার্বার, পঙ্কজ ত্রিপাঠি, রণদীপ হুদা, মার্ক ডোনাটো, ফে মাস্টারসন, ডেরেক লুক প্রমুখ। ছবিটি প্রযোজনা করেছেন মার্ভেলের ‘অ্যাভেঞ্জার্স : ইনফিনিটি ওয়ার’ ও ‘এন্ডগেম’ সিনেমার পরিচালক জো ও অ্যান্থনি রুশো।

২০১৮ সালের নভেম্বরে কাজ শুরু হয় ছবিটির। এরপর ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রডাকশনের কার্যক্রম শেষ হয়। গত ২৪ এপ্রিল নেটফ্লিক্সে মুক্তি পায় ব্যয়বহুল ও আলোচিত ছবিটি। মুক্তির পর থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাচ্ছে ছবিটি।

  •