মহামারী নিয়ে বাকযুদ্ধের মাঝেই আমেরিকায় রহস্য মৃত্যু চিনের করোনা গবেষকের

3

আন্তর্জাতিক ডেস্ক::
করোনা মহামারী নিয়ে চিন ও আমেরিকার বাক যুদ্ধ লেগেই আছে। এরই মধ্যে মার্কিন মুলুকে মৃত্যু হল এক চিনা বিজ্ঞানীর, যিনি আবার করোনাভাইরাস নিয়ে গবেষণা করছিলেন। তাই তাঁর মৃত্যু ঘিরে ক্রমশ বাড়ছে জল্পনা।
মৃত ওই অধ্যাপকের নাম বিং লিউ। ৩৭ বছরের ওই ব্যক্তি পিটসবার্গ ইউনিভার্সিটিতে অধ্যাপনা করতেন। সম্প্রতি করোনাভাইরাসের চরিত্র নিয়ে গবেষণা করছিলেন তিনি।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, গুলিতে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে তারই এক পুরুষ বন্ধুর সঙ্গে কোনও সঙ্গিনীকে নিয়ে বচসার জেরে এই ঘটনা ঘটেছে। মৃত্যু হয়েছে তাঁর ওই বন্ধুরও।
তার বন্ধুর নাম হাও গু, বয়স ৪৬। যে ঘর থেকে ওই অধ্যাপকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে সেই ঘরের এক কোণে ওই বন্ধুর দেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। তিনি খুন করে আত্মহত্যা করেছেন বলেই মনে করছে পুলিশ। তাঁর হাতেই খুন হয়েছেন বিং লিউ।
ওই অধ্যাপকের মৃত্যুর সঙ্গে তাঁর গবেষণার কোনও সম্পর্ক নেই বলেই পুলিশ প্রাথমিকভাবে জানিয়েছে। যদিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে নানা জল্পনা।
কেউ বলছেন আমেরিকা থেকেই করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে এমনটাই নাকি প্রমাণ করার চেষ্টা করছিলেন বিং লিউ। তাই তাঁকে হত্যা করা হয়েছে। আবার কেউ বলেছেন চিনের কমিউনিস্ট সরকারের নির্দেশেই নাকি খুন করা হয়েছে ওই চিনা অধ্যাপককে। তদন্তের দাবিও জানিয়েছেন কেউ কেউ।
পিটসবার্গ ইউনিভার্সিটিতে তাঁর সহকর্মীরা শোক প্রকাশ করেছেন। ওই অধ্যাপকের গবেষণা চালিয়ে যাওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। তিনি যে গবেষণা শুরু করেছিলেন সেই গবেষণা সম্পূর্ণ করা হবে বলেও আশ্বাস দিয়েছেন তাঁরা।

  •