সিলেটের কিশোরী ২৮ দিন পর ঢাকায় উদ্ধার, আটক ১

13

স্টাফ রিপোর্টার
সিলেট থেকে অপহৃত কিশোরী তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ২৮ দিন পর ঢাকায় উদ্ধার করেছে সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানাপুলিশ। সেই সঙ্গে অপহরণকারীকেও আটক করা হয়েছে। আটক অপহরণকারীর নাম সেবলু মিয়া তালুকদার (৩০)। সে সিলেটের ওসমানীনগর থানার রাঙ্গাপুর গ্রামের মোক্তার মিয়া তালুকদার ওরফে কালা মিয়ার ছেলে।

পুলিশ জানায়, সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের সোবহানীঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিমল চন্দ্র দে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গতকাল (৮ মে) ডিএমপি’র আওতাধিন ঢাকার কদমতলি থানা এলাকা হতে সিলেটের অপহৃত ভিকটিম কিশোরীকে উদ্ধার করা হয় এবং ভিকটিমের অপহরণকারীকে গ্রেফতার করা হয়। আটককৃত সেবলু মিয়া তালুকদার (৩০) বর্তমানে বালাগঞ্জের বোয়ালজুড় বাজারে বসবাস করতো।

এর আগে গত এপ্রিল মাসের ১১ তারিখ সকাল ১১টার দিকে সিলেট নগরের মিরাবাজার শাহজালাল জামেয়া স্কুল এন্ড কলেজের সামনে থেকে ১৪ বছরের এক কিশোরী মেয়েকে অপহরণ করে সেবুল। আসামি সেবুল মিয়া ওই কিশোরীর বাবার গাড়ি চালক ছিল। এ ঘটনার বিষয়ে কিশোরীর বাবা বাদি হয়ে সিলেট কোতোয়ালি থানায় এজাহার দায়ের করেন।

এরপর সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সেলিম মিঞার দিক নির্দেশনায় সোবহানীঘাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বিমল চন্দ্র দে নিজস্ব ফোর্সের সহায়তায় সিলেটসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করেন। আসামি ওই কিশোরীকে নিয়ে বার বার স্থান পরিবর্তন করার কারণে একাধিকবার অভিযান পরিচালনা করেও আসামিকে গ্রেফতার ও ভিকটিম উদ্ধার সম্ভব হচ্ছিল না।

অবশেষে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় ভিকটিমকে গতকাল ঢাকা কদমতলী থেকে উদ্ধার করা হয় এবং আসামি গ্রেফতার করা হয় হয়।

পুলিশ আরও জানায়, গ্রেফতারকৃত আসামিকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে এবং অপহৃত কিশোরীকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

  •