নতুন বাজেটে এডিপির আকার বাড়ছে ১.২ শতাংশ

14

সবুজ সিলেট ডেস্ক
করোনা পরিস্থিতির কারণে নতুন অর্থবছরে (২০২০-২১) বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) আকার মাত্র ১.২ শতাংশ বাড়ছে।

মঙ্গলবার (১২ মে) সকালে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠ্যেয় কমিশনের বর্ধিত সভায় নতুন এডিপির খসড়া উত্থাপন করা হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

জানা যায়, গত বছরের তুলনায় এবার অল্পই বাড়ছে এডিপির আকার। গত ৫ অর্থবছরে বাজেটে মূল এডিপির আকার ১১ থেকে ৪১ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছিলো। তবে নতুন এডিপিতে টাকার পরিমাণ না বাড়ায় আকার ও বৃদ্ধি পাচ্ছে না।

পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে রাজস্ব আদায় ও রেমিটেন্স বাধাগ্রস্থ হওয়ায় প্রয়োজনীয় প্রকল্প ছাড়া অন্য প্রকল্পে অর্থবরাদ্দ কম হয়েছে এই কারণ এজন্যই এবারের এডিপির আকার কমে হয়েছে।

আরো জানা যায়, আগামী অর্থবছরের মূল এডিপির আকার দাঁড়াচ্ছে ২ লাখ ৫ হাজার ১৪৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ১ লাখ ৩৪ হাজার ৬৪৩ কোটি টাকা এবং বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৭০ হাজার ৫০১ কোটি ৭২ লাখ টাকা ব্যয়ের লক্ষ্য রয়েছে। চলতি অর্থবছরের মূল এডিপির আকার ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা। কম বৃদ্ধির দিক থেকে এবারের আকারটি রেকর্ড করেছে।

জানা যায়, নতুন এডিপিতে সর্বোচ্চ বরাদ্দ পাচ্ছে স্থানীয় সরকার বিভাগ ৩১ হাজার ১৩১ কোটি টাকা, সড়ক বিভাগ ২৪ হাজার ৮২৫ কোটি টাকা, বিদ্যুৎ বিভাগ ২৪ হাজার ৮০৩ কোটি টাকা, প্রাথমিক-মাধ্যমিক ও কারিগরি মিলিয়ে শিক্ষায় ২১ হাজার ২৪২ কোটি টাকা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় ১৭ হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা, স্বাস্থ্যসেবা এবং স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ ১২ হাজার ৪৯৬ কোটি টাকা, রেল বিভাগ ১২ হাজার ৪৯১ কোটি টাকা ও পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় পাচ্ছে ৬ হাজার ২৬৯ কোটি টাকা।

পরিকল্পনা কমিশনের বর্ধিত সভায় আগামী অর্থবছরের এডিপির চূড়ান্ত খসড়া তৈরি হবে। চলতি মাসের শেষের দিকে এনইসি বৈঠকে এটি চূড়ান্ত অনুমোদন পাবে বলে জানা গেছে। ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী ও এনইসি চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

  •