প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন করোনা রোগী!

8

সবুজ সিলেট ডেস্ক
ভোলায় প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছেন করোনা আক্রান্ত দৌলতখান হাসপাতালের ল্যাব এসিসটেন্ট। এ নিয়ে ওই এলাকার সাধারণ মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। সচেতন লোকজন তাকে ঘুরে বেড়াতে নিষেধ করায় তিনি উল্টো তাদের উপর চড়াও হচ্ছেন বলে অভিযোগ। তবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

ভোলার দৌলতখান হাসপাতালের ল্যাব এসিসটেন্ট কামরুজ্জামান মজনুর গত ১০ মে রবিবার রাতে করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এর পরপরই প্রশাসনের পক্ষ থেকে তার বাসা লকডাউন করা হয়। কিন্তু তিনি লকডাউনের শর্ত ভঙ্গ করে ১১ মে সোমবার থেকে জন সম্মুখে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আজও তিনি বিভিন্ন লোকজনের সাথে লেনদেন করেছেন বলে প্রত্যক্ষদশীরা জানান।

সদর উপজেলার দক্ষিণ চরনোয়াবাদ হাওলাদার মার্কেটের ব্যবাসায়ী মো: কবির, ফজলুর রহমান, বশির আহমেদ, ওয়াসিমসহ স্থানীয় লোকজন জানান, রবিবার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কামরুজ্জামান মজনু করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা যায়। কিন্তু পরদিন ভোরেই তিনি মোটরসাইকেলে ওই মার্কেটে আসেন। স্থানীয়দের সাথে লেনদেন করেন। স্থানীয় লাল মিয়া জানান, করোনা আক্তান্ত হয়ে কেন তিনি প্রকাশ্যে ঘোরাঘুরি করছেন জানতে চাইলে কামরুজ্জামান মজনু তাদের উপর চড়াও হন। তাদেরকে গালিগালাজ করেন এবং দেখে দেয়ার হুমকিও দেন।
ভোলার সিভিল সার্জন ডাক্তার রতন কুমার ঢালি জানান, লকডাউন ভেঙে ঘুরে বেড়ানোর বিষয়টি কামরুজ্জামান মজনু অস্বীকার করেছেন। যেহেতু অভিযোগ উঠেছে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক জানান, তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। এখন তিনি যদি শর্ত ভঙ্গ করে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ান তা হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  •