সিলেট ওসমানীর ৩ স্টাফ নার্স শামসুদ্দিন হাসপাতালে

11

সবুজ সিলেট ডেস্কঃ করোনা ভাইরাস শনাক্ত ৫ সিনিয়র স্টাফ নার্সের মধ্যে ৩ জনকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি ২ সিনিয়র স্টাফ নার্স ও এক ওয়ার্ডবয়কে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন- সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়।

তিনি জানান- করোনা শনাক্তের পর শুক্রবার রাতেই ৩ জনকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের আইসোলেশনে নেয়া হয়েছে। বাকি ২ সিনিয়র স্টাফ নার্স ও এক ওয়ার্ডবয় আপাতত হোম আইসোলেশনে রয়েছেন।

সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন হাসপাতালের আরএমও সুশান্ত মহাপাত্র জানান- গত রাত ১১ টার দিকে তাদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তারা মোটামুটি সুস্থ্য রয়েছেন।

এদিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় জানান- করোনা সন্দেহভাজন স্টাফ নার্সদের আগেই নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। ওখান থেকে ৫ জনের পজিটিভ ধরা পড়ে। যে কারণে, তাদের সংস্পর্শে আসা নার্সদের আর নমুনা পরীক্ষা লাগছে না। তবে ওয়ার্ডবয়দের নমুনা পরীক্ষা বাকি আছে, যা পর্যায়ক্রমে করা হবে। সবাই পর্যবেক্ষণে রয়েছে।

অপরদিকে আক্রান্ত ৫ সিনিয়র স্টাফ নার্স ওসমানী হাসপাতালের আইসিইউ-তে দায়িত্ব পালন করেছেন। এ অবস্থায় হাসপাতালের আইসিইউ বন্ধ করে দেয়া হবে কিনা; এমন প্রশ্নে ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন- ওসমানী হাসপাতালের আইসিইউতে দুটি ইউনিট রয়েছে। আক্রান্তরা ইউনিট-২ তে কাজ দায়িত্ব পালন করেছেন। তাই ওই ইউনিটে আপাতত ভর্তি নেয়া হচ্ছে না।

এর আগে গত শুক্রবার (১৫ মার্চ) সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হলে ১৩ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

এর মধ্যে ওসমানী হাসপাতালের ৫ নার্স ও এক ওয়ার্ডবয়, দক্ষিণ সুরমায় পাঁচজন, সদর উপজেলায় ১ জন এবং ওসমানীনগরের একজন সনাক্ত হন।

তখন সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের একটি বিশ্বস্ত সূত্র বিষয়টি সিলেট ভয়েসকে নিশ্চিত করে।

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বরে চীনের উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস বাংলাদেশে ধরা পরে গত ৮ মার্চ। আর সিলেট বিভাগে সর্বপ্রথম করোনাভাইরাস ধরা পড়ে গত ৫ এপ্রিল। সিলেট বিভাগের প্রথম রোগী হিসেবে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মঈন সনাক্ত হন।

এরপর সর্বশেষ গত শুক্রবার (১৫ মে) নতুন আরও ১৩ জন নিয়ে সিলেট বিভাগে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩৫৮ জন।

এর মধ্যে সিলেট জেলায় ১১৬, সুনামগঞ্জে ৬৭, হবিগঞ্জে ১১৮ ও মৌলভীবাজার জেলায় ৫৭ জন। আর করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেট বিভাগে মারা গেছেন ৬ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ৩, হবিগঞ্জে ১ ও মৌলভীবাজারে ২ জন। তবে সুনামগঞ্জে এখন পর্যন্ত করোনায় কোনো মৃত্যু নেই।

  •