যুক্তরাষ্ট্রে হবে না ঈদের জামাত

8

এমদাদ চৌধুরী দীপু, নিউইয়র্ক থেকে::
আর কয়েকটা দিন বাকি ঈদুল ফিতরের। মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদের অন্যতম আনুষ্ঠানিকতা ঈদ জামাত। প্রতিবছর বিশ্বের নানা দেশের মুসলমানরা সমবেত হতেন একমাস সিয়াম সাধনার পর ঈদ জামাতে। কোন ঈদগাহে মুসল্লি বাড়লেন, কোন ঈদগাহে কে অংশ নিলেন এসব ছিল আলোচনার বিষয়। এখানে স্থায়ী ঈদগাহ নেই। তবে বিভিন্ন পার্কে আয়োজন হতো ঈদ জামাত, কোথাও প্রথম জামাত, দ্বিতীয় জামাতের ব্যবস্থা হতো। পার্ক পরিণত হতো ঈদগাহে উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে পড়ত সব বয়সের মানুষের মাঝে। এবার সর্বশেষ পাওয়া খবরে জানা গেছে, বিভিন্ন শীর্ষ মসজিদের ইমামদের মাধ্যমে কাউকে ঈদ জামাতের অনুমতি দেয়া হয়নি।
যুক্তরাষ্ট্রে যে সব অঙ্গরাজ্যে মুসলমানরা বেশি বসবাস করেন সে সব অঙ্গরাজ্যে লকডাউন এখনো বহাল আছে এবং ঈদের আগে লকডাউন তুলার সম্ভাবনা নেই। পুরো রমজানে বন্ধ ছিল মসজিদ, হয়নি তারাবির নামাজ এমনকি পাঁচ ওয়াক্তের নামাজ বন্ধ রয়েছে মসজিদগুলোতে। কিছু মসজিদে দু-একজন এতেকাফ করার তথ্য জানিয়েছেন মসজিদের ইমামরা।
যুক্তরাষ্ট্রে শীর্ষ ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান জামাইকা মুসলিম সেন্টার, ম্যানহাটনের মদিনা মসজিদ, এস্টোরিয়া আল আমিন মসজিদ, ব্রুকলিন মসজিদের ব্যবস্থাপনার সাথে জড়িতরা জানিয়েছেন, ঈদ জামাতের সব প্রস্তুতি থাকলেও পুলিশের পক্ষ থেকে অনুমতি পাওয়া যায়নি। তবে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত পুলিশের অনুমতি যে কোনো শর্তে পাওয়া গেলে সংক্ষিপ্ত পরিসরে হলেও ঈদ জামাত আয়োজন করতে চান মসজিদ কমিটির নেতারা।
যুক্তরাষ্ট্রে এক হাজারের নিচে নেমে এসেছে মৃত্যু তবে এখনো ২৪ ঘন্টায় ২৩ হাজার আক্রান্ত হওয়ার তথ্য দিয়েছে ওয়ার্ল্ডোমেটার তথ্য বাতায়ন। এই সূত্রমতে মোট শনাক্ত ১৫ লাখ ৫০ হাজারের ওপরে। মোট মৃত্যু ৯১হাজার ৯৮১জন, আর সুস্থ হয়েছেন একদিনে প্রায় ১০ হাজার, মোট সুস্থ এখন ৩লাখ ৫৬ হাজারের অধিক।
এদিকে মৃত্যু এবং শনাক্ত দুটি এখন অনেক নিচে নেমে এসেছে নিউইয়র্কে, একদিনে শনাক্ত ১২শ আর মৃত্যু ১৫৫জন। নিউইয়র্কে মোট মৃত্যু ২৮হাজার ৪৮০ জন, শনাক্ত ৩লাখ ৬১ হাজারের বেশি।

  •