যশোরে নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য সব স্কুল খুলে দেওয়া হয়েছে

12

যশোরের উপর দিয়ে ৫৫ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো বাতাস বয়ে যাচ্ছে। আজ বুধবার সন্ধ্যার দিকে বাতাসের গতিবেগ আরও বাড়তে পারে। তিনটার দিকে যশোর আবহাওয়া অফিস থেকে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় আম্পান মোকাবিলার জন্যে যশোর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। কাঁচা ঘরবাড়িতে থাকা মানুষের নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য জেলার আটটি উপজেলার সব বিদ্যালয় খুলে দেওয়া হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস সূত্রে জানা গেছে, নিম্নচাপটি বর্তমানে সুন্দরবন এলাকা অতিক্রম করছে। যশোরের ওপর দিয়ে ৫৫ কিলোমিটার বেগে ঝড়ো বাতাস বয়ে যাচ্ছে। সন্ধ্যা নাগাদ ঘূণিঝড় যশোর অতিক্রম করবে। এ সময় বাতাসের গতিবেগ আরও বাড়তে পারে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর যশোরের উপপরিচালক মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘যশোরের মাঠে কোনো ধান নেই। ঝড়ের আগেই সব ধান কেটে কৃষকের ঘরে উঠানো হয়েছে। তবে ঝড়ের তীব্রতার উপর নির্ভর করে আম-লিচু ও সবজির কিছু ক্ষতি হতে পারে।’

ঝড় মোকাবিলায় প্রস্তুতির বিষয়ে জানতে চাইলে যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ বলেন, দুর্বল বাড়ি-ঘরে থাকা মানুষদের নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য পার্শ্ববর্তী বিদ্যালয়ে অবস্থান নিতে বলা হয়েছে। ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে এ বিষয়ে প্রচার চালানো হয়েছে। এ ছাড়া মানুষের ঘরবাড়ি ক্ষতির হলে আর্ধিক সহায়তা ও ত্রাণ সুবিধা দেওয়ার প্রস্তুতি রয়েছে।

  •