হংকংয়ে নিরাপত্তা আইনে ধনকুবের জিমি লাই গ্রেফতার

8

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
বিদেশি শক্তির সঙ্গে আঁতাতের অভিযোগে নিরাপত্তা আইনে হংকংয়ের ধনকুবের জিমি লাইকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। খবর বিবিসি।

পাশাপাশি, তার মালিকানায় থাকা পত্রিকা অ্যাপল ডেইলি’র অফিসেও তল্লাশী চালিয়েছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

এদিকে, চীনের রাষ্ট্রীয় মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, মিডিয়া মুঘল জিমি লাই, তার দুই ছেলে এবং নেক্সট ডিজিটালের একজন নির্বাহীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

হংকং পুলিশের পক্ষ থেকে এক ফেসবুক পোস্টে জানানো হয়েছে, নিরাপত্তা আইনের অধীনে ৩৯-৭২ বছর বয়সী সাতজনকে গ্রেফতার করেছে তারা। কিন্তু, ওই পোস্টে কারও নাম উল্লেখ করা হয়নি।

এর আগে, জুন মাসের শুরুতে চীন হংকংকে জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অধীনে আনার পর এই প্রথম কোনো হাই প্রোফাইল ব্যক্তিকে গ্রেফতারের ঘটনা ঘটলো।

অন্যদিকে, হংকং ও যুক্তরাজ্যের দ্বৈত নাগরিক জিনি লাই গণতন্ত্রপন্থি হিসেবে সুপরিচিত। তাকে গ্রেফতারের গুজব বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল। বিবিসি ও এএফপি’র সঙ্গে আলাদা আলাদা আলাপচারিতায় জিমি লাই বলেছিলেন, গ্রেফতারকে তিনি ভয় পান না। জেলে যাওয়ার জন্য তিনি তৈরি আছেন। তবে, আইনের শাসনের পথ রুদ্ধ করে মেইনল্যান্ডের মতো হংকংকেও একটি দুর্নীতিগ্রস্ত অঞ্চলে পরিণত করতে চাইছে চীনের কমিউনিস্ট পার্টি – বলে তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছিলেন।

প্রসঙ্গত, নিরাপত্তা আইনের দোহাই দিয়ে এর আগে বেশ কয়েকজন গণতন্ত্রপন্থি নেতাকে নির্বাচনে লড়া থেকে বিরত রেখেছিল হংকং এর প্রশাসন। তাছাড়াও, ফেসবুক পোস্টের সূত্রধরে চারজন গণতন্ত্রপন্থি আন্দোলনের কর্মীকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

  •