যুক্তরাষ্ট্রে ফের ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়

5

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় স্যালি। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে আঘাত হানতে পারে এই শক্তিশালী ঝড়। সে কারণে ইতোমধ্যেই ফ্লোরিডা, মিসিসিপি এবং আলাবামার বাসিন্দাদের ঘূর্ণিঝড়ের বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।

মাত্র কয়েকদিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলে তাণ্ডব চালিয়েছে ক্যাটাগরি চার মাত্রার হারিকেন লরা। এক মাস যেতে না যেতেই আবারও গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড়ের মুখে পড়েছে দেশটি।

যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, সোমবার এই ঝড়টি ক্যাটাগরি দুই মাত্রার ঝড়ে পরিণত হয়েছে। স্থানীয় সময় বুধবার সকালের দিকে ঘূর্ণিঝড়টি আছড়ে পড়তে পারে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে ৩০ সেন্টিমিটারের বেশি বৃষ্টিপাত এবং বিভিন্ন স্থানে ঘণ্টায় ১৩৫ কিলোমিটার বেগে বাতাস বয়ে যেতে পারে।

এ বছর যুক্তরাষ্ট্রে এ নিয়ে বেশ কয়েকটি ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে যাচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি) জানিয়েছে, স্যালির প্রভাবে দেশটির উপসাগরীয় উপকূলে প্রবল বাতাসের পাশাপাশি আচমকা বন্যা ও জলোচ্ছ্বাস দেখা দিতে পারে।

লুইজিয়ানার গভর্নর জন বেল এডওয়ার্ড ওই এলাকায় জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। পাশাপাশি, আগের ঝড়ের ক্ষত মেটাতে ব্যস্ত স্থানীয়দের নতুন ঝড় এবং মহামারির ঝুঁকি বিষয়ে প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। সোমবার এক টুইট বার্তায় তিনি লোকজনকে নিজেদের নিরাপত্তার বিষয়ে সতর্ক করেছেন।

ঘূর্ণিঝড়ের আতঙ্কে ইতোমধ্যেই আলাবামা এবং মিসিসিপি অঙ্গরাজ্যেও জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার ঘূর্ণিঝড়টি মিসিসিপির বিলোক্সির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চল থেকে ১৪৫ মাইল দূরে অবস্থান করছিল। এটি স্থলের দিকে ঘণ্টায় ৬ মাইল বেগে ধেয়ে আসছে।

মিসিসিপির গভর্নর টেট রিভস জানিয়েছেন, বিলোক্সির কাছে এই ঘূর্ণিঝড়টি বুধবার আঘাত হানতে পারে। এছাড়া ফ্লোরিডা, লুইজিয়ানায় বন্যা হওয়ারও আশঙ্কা রয়েছে।