রেমিট্যান্স পাঠানোয় শীর্ষে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীরা

4

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) কারণে বিশ্বজুড়ে মন্দা থাকলেও ঘুরে দাঁড়াচ্ছে বাংলাদেশের অর্থনীতি। এর পেছনে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখছেন প্রবাসীরা। কয়েক মাস ধরেই রেকর্ড পরিমাণ রেমিট্যান্স পাঠাচ্ছেন তারা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের সময়ে অর্থনীতির সবগুলো সূচক যখন ছিল নেতিবাচক, তখনো এই রেমিট্যান্সেই ছিল কেবল ঊর্ধ্বগতি। আর এই রেমিট্যান্সে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখছেন সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীরা। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্য বলছে, চলতি অর্থবছরে প্রথম দুই মাসেই রেমিট্যান্স পাঠানোর ক্ষেত্রে শীর্ষে ছিলেন সৌদি আরব প্রবাসীরা। তাদের পরেই অবস্থান যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসীদের। গত দুই মাসে রেমিট্যান্স পাঠানোয় তৃতীয় স্থানে ছিলেন সংযুক্ত আরব আমিরারাতের প্রবাসী বাংলাদেশিরা।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, চলতি ২০২০-২০২১ অর্থবছরের প্রথম দুই মাস জুলাই ও আগস্টে ৪৫৬ কোটি ৩৯ লাখ ৩৯ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা। এর মধ্যে জুলাই মাসে ২৬০ কোটি ডলার ও আগস্ট মাসে ১৯৬ কোটি ৩৯ লাখ মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স আসে দেশে। জুলাই মাসের ২৬০ কোটি ডলার রেমিট্যান্স কোনো একমাসে দেশে আসা রেমিট্যান্সের রেকর্ড। অর্থাৎ একমাসে এত বেশি রেমিট্যান্স এর আগে কখনো আসেনি দেশে। এর আগে চলতি বছরেরই জুনে ১৮৩ কোটি ৩০ লাখ ডলার রেমিট্যান্স এসেছিল দেশে, তা ছিল ওই সময় পর্যন্ত রেকর্ড। পরে আগস্টে তার চেয়েও প্রায় ১৩ কোটি ডলার বেশি রেমিট্যান্স এলে তা দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রেকর্ডের স্থান করে নেয়।