সিলেটে জালালাবাদ গ্যাস অফিসে ২ সাংবাদিক লাঞ্ছিত

45
অভিযুক্ত জেজিটিডিএসএল’র কর্মকর্তা চৌধুরী নিশাতুর রহমান কুরেশী। 

স্টাফ রিপোর্টার :: সিলেট জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিসন এ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লিমিটেড (জেজিটিডিএসএল) অফিসে গিয়ে লাঞ্ছিত হয়েছেন বেসরকারি একটি টেলিভিশন চ্যানেলের দুই সাংবাদিক। বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এসময় সাংবাদিকের সাথে থাকা ক্যামেরা ভাংচুর করা হয় বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, বুধবার বিকেলে সংবাদ সংগ্রহের কাজে জেজিটিডিএসএল অফিসে যান এসএটিভি’র সিলেট অফিসের প্রতিবেদক আবু বকর আল আমিন ও ক্যামেরাপার্সন শ্যামনন্দ দাশ। গ্যাস অফিসে প্রবেশের সময় তাদের লাঞ্ছিত করেন সেখানকার কর্মকর্তারা। এঘটনায় সিলেট কতোয়ালি থানায় সাধারণ ডায়রি (জিডি) করেছেন আবু বকর আল আমিন।

আবু বকর আল আমিন বলেন, জালালাবাদ গ্যাসের বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে আমি প্রতিবেদন তৈরি করছি। এজন্য সংশ্লিস্টদের বক্তব্য নিতে দুইদিন আগে জালালাবাদ গ্যাসের প্রকৌশলী লিটন কুমার নন্দীর সাথে যোগাযোগ করি। এসময় তিনি তার অফিসে গিয়ে দেখা করার কথা বলেন।

আল আমিন বলেন, লিটন নন্দীর কথা মতো আমি বুধবার বিকেলে নগরের মেন্দিবাগ এলাকার জেজিটিডিএসএল অফিসে যাই। সেখানে যাওয়ার পর আমি ও আমার সাথে থাকা ক্যামেরাপার্সন শ্যামানন্দ দাশকে নিরাপত্তাকর্মীরা অভ্যর্থনা কক্ষে নিয়ে বসান। এরকিছুক্ষণ পর জেজিটিডিএসএল’র নিরাপত্তা বিভাগের ব্যবস্থাপক চৌধুরী নিশাতুর রহমান কুরেশীর নেতৃত্বে ৫/৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী এসে আমাদের ক্যামেরা নিয়ে প্রবেশের কারণ জানতে চান। একপর্যায়ে তারা ক্যামেরা ধরে টান দেন এবং আমাদের লাঞ্ছিত করেন।

এ ব্যাপারে বুধবার রাতে চৌধুরী নিশাতুর রহমান কুরেশীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, উর্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া আমি এ ব্যাপারে কিছু বলতে পারবো না। আপনি অফিসে এসে দায়িত্বশীল কর্মকর্তার সাথে কথা বলেন।

 

সবুজ সিলেট/ ২৪ সেপ্টেম্বর/ এহিয়া আহমদ