নীলা হত্যার প্রতিবাদে মুখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন

2

সবুজ সিলেট ডেস্ক :: ঢাকার সাভারে স্কুলছাত্রী নীলা রায় হত্যার প্রতিবাদে মুখে কালো কাপড় বেঁধে মানববন্ধন হয়েছে। রোববার সকাল ১০টায় সাভারের বঙ্গবন্ধু চত্বরে এই কর্মসূচির আয়োজন করে ছবিঘর নামে একটি সংগঠন। মানববন্ধন থেকে বক্তারা কিশোর গ্যাং নির্মূলে প্রশাসনের প্রতি কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানান।

এদিকে নীলা রায় হত্যা মামলার প্রধান আসামি মিজানুর রহমানকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। তবে জিজ্ঞাসাবাদের প্রথম দিনে তাঁর কাছ থেকে তেমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন তদন্ত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। গত শুক্রবার রাতে তেঁতুলঝোড়া ইউনিয়নের রাজফুলবাড়িয়া এলাকা থেকে গ্রেপ্তারের পর শনিবার আদালতের মাধ্যমে তাঁকে সাত দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।

রোববারের মানববন্ধনে ছবিঘরের প্রতিষ্ঠাতা প্রিন্স ঘোষ বলেন, সাভারের কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যদের আইনের আওতায় আনতে হবে। তাঁদের আইনের আওতায় আনা হলে সাভারে অপরাধ কমে যাবে। ছবিঘরের সভাপতি হাসিবুল হাসান বলেন, মাদকের থাবায় সাভারের যুব, তরুণ ও কিশোরেরা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। অসুস্থ মস্তিস্কে তাঁরা যা খুশি, তা–ই করছেন। এর শিকার হয়েছে স্কুলছাত্রী নীলা রায়। এখনই ব্যবস্থা না নিলে আরও অনেক মেয়েকেই নীলার মতো প্রাণ দিতে হবে।

এর আগে গত শনিবার সাভার নাগরিক কমিটির মানববন্ধন থেকে কিশোর গ্যাং প্রতিরোধে প্রতিটি পাড়া ও মহল্লায় কমিটি গড়ে তোলার ঘোষণা দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম। ৩০ সেপ্টেম্বর উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জানান তিনি।

সাভার থানার পরিদর্শক (তদন্দ) মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, মিজানুরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদে তাঁর কাছ থেকে তেমন কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। যেসব তথ্য তিনি দিয়েছেন, তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

২০ সেপ্টেম্বর রাত আটটার দিকে ভাইয়ের সঙ্গে রিকশায় করে হাসপাতালে যাওয়ার পথে নীলাকে ছিনিয়ে নিয়ে বখাটে মিজানুর ছুরিকাঘাতে হত্যা করেন বলে অভিযোগ করেছে পরিবার। এ ঘটনায় নীলার বাবা নারায়ণ রায় গত সোমবার রাতে সাভার থানায় মিজানুর, তার বাবা আবদুর রহমান, মা নাজমুন্নাহার সিদ্দিকাসহ অজ্ঞাতনামা আরও চারজনকে আসামি করে মামলা করেন। পুলিশ মিজানুর, তাঁর মা–বাবাসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে।