সিলেট পুলিশ কমিশনার বরাবরে লন্ডন প্রবাসীর অভিযোগ

35


সবুজ সিলেট :: সিলেট শহরতলীর শাহপরাণ থানাধীন মদিনা আবাসিক এলাকার মৃত চমক আলীর ছেলে লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমান স্থানীয় এলাকার সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবি এবং লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যদের জান ও মালের নিরাপত্তা চেয়ে সিলেট পুলিশ কমিশনার বরাবরে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, লন্ডনপ্রবাসী সাইফুর রহমানের বাড়িতে এলাকার কিছু স্থানীয় সন্ত্রাসী আড্ডা দিত। গত ২০ সেপ্টেম্বর বাসার কেয়ারটেকার সাইদুর রহমান বিল্ডিংয়ের কাজ করানোর জন্য মালামাল নিয়ে আসার পথে তিনি দেখেন কিছু স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহিনী বসে আড্ডা দিচ্ছেন। সাইদুর রহমানের নিয়ে আসা মালামাল তাদের গায়ে লাগবে দেখে তিনি তাদের সরে যেতে অনুরোধ করেন, কিন্তু দুর্বৃত্তরা তার অনুরোধে ক্ষিপ্ত হয়ে তার (সাইদুর রহমানের) উপর আক্রমনাত্মক হয়ে ওঠে। তাদের চিৎকার-চেচামেচি শুনে লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমান বাইরে বেরিয়ে এগিয়ে আসলে দুর্বৃত্তরা তার উপরও ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং আক্রমনাত্মক ব্যবহার শুরু করে। এক পর্যায়ে তাকে (লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমান)-কে প্রাণে মারার হুমকিও দেয়। পরবর্তীকালে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পরিস্থিতি শান্ত হলেও, দুর্বৃত্তরা যাওয়ার সময় লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমানকে ‘পরে দেখে নেবে’ বলে হুমকি দিয়ে সেখান থেকে চলে যায়।

পরদিন ২১ সেপ্টেম্বর বিকাল (আনুমানিক) ৩টার দিকে অর্ধশতাধিক লোকজন নিয়ে দুর্বৃত্তরা লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমানের বাড়িতে আক্রমন করে। কিছু দুর্বৃত্তরা বাড়ির ভেতরে অবস্থান করে আবার কিছু দুর্বৃত্তরা বাড়ির বাহিরে অবস্থান নেয়। দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হওয়ার পর, দুর্বৃত্তরা লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমানকে অকৈথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং প্রাণে মারার হুমকিও দিতে থাকে। তাদের চিৎকার-চেচামেচি শুনে স্থানীয় এলাকার মুরুব্বিগণ এগিয়ে এসে তাদেরকে রক্ষা করেন এবং সাইফুর রহমানের কেয়ার টেকার সাইদুর রহমানের কাছে দুর্বৃত্তদের মাফ চাওয়ার জন্য বলেন।

দুর্বৃত্তরা স্থানীয় এলাকার মুরুব্বিয়ানদের চাপে পড়ে কেয়ার টেকারের কাছে ক্ষমা চেয়ে চলে গেলেও পরবর্তীকালে দুর্বৃত্তরা বিভিন্নভাবে লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমানকে হেনস্থা করতে থাকেন। এমতাবস্থায় তিনি (লন্ডন প্রবাসী সাইফুর রহমান) তার ও তার পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা চেয়ে সিলেট পুলিশ কমিশনার বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেন। যাহার নং-২৭২০।

 

 

সবুজ সিলেট/ ৩০ সেপ্টেম্বর/ এহিয়া আহমদ