সিলেটে রাতে লাইভে সাকিবকে হত্যার হুমকি, সকালে দুঃখপ্রকাশ

70

সবুজ সিলেট ডেস্ক::
বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের তারকা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে চাপাতি দিয়ে গলা কেটে হত্যার হুমকি দিলেন সিলেটের এক যুবক। ভারতের কলকাতায় গিয়ে কালি পূজার অনুষ্ঠান উদ্বোধন করায় তাকে এ হুমকি দেওয়া হয়।

সোমবার (১৫ নভেম্বর) দিবাগত রাত ১২ টা ৬ মিনিটে ফেসবুক লাইভে এসে সাকিব আল হাসানকে গলা কেটে হত্যার ঘোষণা দেন ওই যুবক। ‘মহসিন তালুকদার’ নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে আইডির ওই যুবকের বাড়ি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের জালালাবাদ থানা এলাকার মইয়ার চর বলে প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে।

প্রথমে মাথায় টুপি পরে ফেসবুক লাইভে এসে সালাম প্রদর্শন করে ওই যুবক বলেন, ‘সাকিব আল হাসান কয়দিন আগে দেশে আইছইন। কিছুদিন আগে তাইন হজে গেছিলা, তখন খুশি হইছিলাম। কিন্তু তাইন ইবার দেশে আইয়া আবার গেলাগি ইন্ডিয়াত পূজা উদ্বোধন করাত। ইটায় মুসলমানের কলিজায় আঘাত করছে। আমি ফাইলে তারে (একটি চাপাতি প্রদর্শন করে) তারে কোপাইয়া কোপাইয়া কাটিমু।’

এসময় সাকিব আল হাসানকে গালিগালাজ করে পাকিস্তানের ক্রিকাটারদের অনুসরণ করার কথা পরামর্শ দিয়ে ওই যুবক বলেন, ‘তুই কিতা পাকিস্তানের ক্রিকাটাররারে দেখছস না? তোরতো তারারে দেখা উচিৎ। তুই মুসলমানের বাচ্চা হইয়া গেছোস পূজা উদ্বোধন করাত। কলিজাত তুই অলা আঘাত দিছস। তোরে ফাইলে আমি কোপাইয়া কাটিমু। সবাই হুনিয়া রাখইন আমি মহসিন তালুকদার কইরাম। সাকিবরে ফাইলে আমি কোপাইয়া কাটিমু।’

এসময় ওই যুবক সাকিব আল হাসান সেলফি তোলা নিয়ে ভক্তদের সাথে খারাপ আচরণ করার সমালোচনাও করেণ এমনকি গালিগালাজ করেন।

এদিকে রাতের ওই লাইভের পর আজ সোমবার (১৬ নভেম্বর) ভোরে ওই আইডি থেকে ফের লাইভে আসেন মহসিন তালুকদার নামের ওই যুবক। এসময় তিনি আগের লাইভের কথাগুলোর জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, ‘রাত্রে আমি একটি লাইভে এসে সাকিব আল হাসানকে গালিগালাজ করেছিলাম। কিন্তু ফজরের নামাজে যাওয়ার পর আমার মনে হলো বিষয়টি ঠিক হয়নি। তখন আমি তার হেদায়াতের জন্য দোয়া করি। আল্লাহর কাছে বলি আল্লাহ যেন তাকে হেদায়াত দান করেন। যদিও তখন খুব উত্তেজিত হয়ে আমি অনেকগুলো কথা বলেছি। কিন্তু বিষয়টি ঠিক হয়নি। এজন্য আমি দুঃখিত।’

এদিকে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের জালালাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অকিল উদ্দিন আহমদ বলেন, বিষয়টি আমি কিছুক্ষণ আগে জেনেছি। আমি আমার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে আলাপ করছি। এর পর দেখি কি পদক্ষেপ নেওয়া যায়।

প্রসঙ্গত, গতকাল ১২ নভেম্বর কলকাতায় গিয়ে কালীপূজার অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ব ক্রিকেটের অন্যতম শ্রেষ্ঠ এই অলরাউন্ডার। ওই দিন সন্ধ্যায় ফিতা কেটে ও প্রদীপ জ্বালিয়ে পূর্ব কলকাতার কাঁকুড়গাছি ‘আমরা সবাই ক্লাব’এর ৫৯তম শ্যামা পূজার অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার সাকিব। এ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, আমরা সবাই ক্লাবের প্রধান পৃষ্ঠপোষক ও তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক পরেশ পাল, দক্ষিণেশ্বর আদ্যাপীঠের আচার্য মুরাল ভাই, কলকাতাস্থ বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের উপদূতাবাস তৌফিক হাসান, দূতাবাস প্রধান কনসুলার বি.এম.জামাল হোসেন প্রমুখ।

কলকাতার যে কটি বড় কালীপূজার আয়োজন হয়, তার মধ্যে কলকাতার ‘আমরা সবাই ক্লাব’র পূজা অন্যতম। কলকাতায় কালীপূজা উদ্বোধনে বরাবরই দেশ-বিদেশের সেলিব্রিটিদের মঞ্চে দেখা যায়। এবার উদ্বোধনে দেখা গেল বিশ্বসেরা ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে। ‌

সন্ধ্যায় ঘোড়ায় টানা রথে করে ক্লাব প্রাঙ্গণে নিয়ে আসা হয় সাকিবকে। এরপর ফিতা কেটে মণ্ডপে প্রবেশ করেন তিনি। পরে প্রদীপ জ্বালিয়ে পূজার উদ্বোধন করেন।

সবুজ সিলেট/১৬ নভেম্বর/শামছুন নাহার রিমু