ভাঙ্গাচোড়া কালভার্ট ঝুঁকি নিয়ে চলাচল

6

আমিনুল ইসলাম,তাহিরপুর ::
তাহিরপুর উপজেলায় বাদাঘাট-গুটিলা সড়কে ভাঙ্গাচুড়া বক্স কালভার্টটি ভেঙ্গেচুরে গেছে।যে কারণে কালভার্টটির উপড় দিয়ে যানবাহন চলাচল করায় প্রায়ই দূর্ঘটনার স্বীকার হচ্ছেন পথচারীরা।

তবে এর সংস্কারে কোন উদ্যোগ নেই কর্তৃপক্ষের।
ভাঙ্গাচোরা কালভার্টটি উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়ন অফিসের এক কিলোমিটার দক্ষিণে পড়েছে। হেমন্ত মৌসুমে এ রাস্তার উপর দিয়ে মোটর সাইকেল,অটোরিক্সা ও সিএনজি দিয়ে আসা পর্যটকগণ শিমুল বাগান,শহীদ সিরাজ লেক,টেকেরঘাট যাতায়াত করে থাকেন। অপরদিকে দেশের উত্তর পূর্বঞ্চলের ৩টি স্থল শুল্কষ্টেশন উপজেলার বড়ছড়া,চারাগঁাও ও বাগলী স্থল শুল্ক ষ্টেশনে যাতায়াত করে থাকেন।

উত্তর বড়দল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও উত্তর বড়দল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি জামাল উদ্দিন জানান,প্রায় এক বছর ধরে উত্তর বড়দল ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন বক্স কালভার্টটি ভেঙ্গে পড়ে আছে। আটো রিক্সা চালকরা তাদের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় উপরে স্টীলের সিট ফেলে তারা যাত্রী নিয়ে ঝঁুকির মধ্যে চলাফেরা করছে। এতে প্রায় সময়ই অটো রিক্সা উল্টে যাত্রীরা আহত হন।
উত্তর বড়দল ইউনিয়নের বড়গুপ টিলা গ্রামের আদিবাসী নেতা পুলক আজিম বলেন,তিনি কিছুদিন পূর্বে সন্ধ্যার পর বাদাঘাট বাজার থেকে ভাড়ায় চালিত মোটর সাইকেল নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। উত্তর বড়দল ইউনিয়ন পরিষদের কাছাকাছি বক্স কালভার্টের উপর আসা মাত্রই চালক মোটর সাইকেল নিয়ে তাকেসহ ছিটকে পড়েন। এ অবস্থায় তিনি ও চালক দুজনেই গুরুতর আহত হন।

এ বিষয়ে উত্তর বড়দল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম বলেন, বাদাঘাট-উত্তর বড়দল রাস্তাটি এলজিইডি’র নির্মানাধীন রাস্তা। উক্ত রাস্তা কোন ধরনের ভাঙ্গাচুড়া দেখা দিলে এলজিইডি’ই মেরামত করবে। তিনি অনেকবার এলজিইডি কর্তৃপক্ষকে অবগত করার পরও তারা কোন উদ্যোগ নেননি। তিনি আরো জানান, রাস্তায় চলাচলকারী মানুষের দূর্ভোগ দেখে তিনি তাহার ব্যক্তিগত উদ্যোগে উক্ত বক্স কালভার্টটি মেরামত করে দিবেন বলে জানান।

তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্দু চৌধুরী বাবুল বলেন,দ্রুত সময়ের মধ্যে উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে বক্স কালভার্টটি মেরামত করা হবে।

সবুজ সিলেট/ এস মায়াজ আহমদ তালহা