সিলেটে নৈশ প্রহরী খুনের ঘটনায় একজনের মৃত্যুদণ্ড

14

সবুজ সিলেট ডেস্ক :: সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার কাইরঘাট দারুল উলুম মাদ্রাসার নৈশ প্রহরী খুনের ঘটনায় এক আসামিকে মৃত্যুদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার সিলেটের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ চতুর্থ আদালতের বিচারক মো. মিজানুর রহমান ভুঁইয়া এই আদেশ দেন। পাশাপাশি আদালত ৩ জনকে খালাস প্রদান করেছেন।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মোফাজ্জল আলী (২৫) বিশ্বনাথ উপজেলার কাইরঘাট গ্রামের মৃত মুসলিম আলীর ছেলে।

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৯ জুন উপজেলার দেওকলস ইউনিয়নের কাইরঘাট দারুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে পূর্ব শত্রুতার জেরে কুপিয়ে খুন করা হয় চাঁদপুর জেলার খুলিয়াডুলি গ্রামের বাসিন্দা ও ওই মাদ্রাসার নৈশ প্রহরী আব্দুল মতিন খানকে (৫০)। এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে সেলিনা বেগম বাদী হয়ে বিশ্বনাথ থানায় ৩ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে একই বছরের ২৯ আগস্ট চার জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বিশ্বনাথ থানার তখনকার এসআই টিপু সুলতান। মামলায় ২৯ জন সাক্ষীর মধ্যে ১৯ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে সোমবার রায় প্রদান করেন আদালত।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) অ্যাডভোকেট আব্দুস ছাত্তার জানান, আদালত মোফাজ্জল হোসেনকে ফাঁসির আদেশ ও দোষী প্রমাণ না হওয়ায় একই গ্রামের তারেক আহমদ, সুরুজ আলী ও সুরমান আলীকে খালাস প্রদান করেছেন।

  •