প্যারোলে মুক্তির ৪ ঘণ্টা পর কারাগারে ইরফান সেলিম

20

সবুজ সিলেট ডেস্ক::
নৌবাহিনীর কর্মকর্তাকে মারধরের ঘটনায় হাজী সেলিমের ছেলে কারাবন্দি ইরফান সেলিম চার ঘণ্টার জন্য প্যারোলে মুক্তি পেয়েছিলেন। মা গুলশান আরা সেলিমের জানাজা ও দাফনে অংশ নিতে সোমবার (৩০ নভেম্বর) তাকে প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়।

পুরান ঢাকায় আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিমের স্ত্রী গুলশান আরা সেলিম

রবিবার (২৯ নভেম্বর) রাত পৌনে ১২টায় ঢাকার ধানমন্ডি ল্যাবএইড হাসপাতালে মারা যান। সোমবার সকালে ইরফান সেলিমের প্যারোলে মুক্তির জন্য স্বজনরা কারা কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পাওয়ার পর বিকেল পৌনে তিনটায় ইরফান সেলিমকে মায়ের জানাজায় অংশ নিতে প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বিকেল পৌনে তিনটায় ইরফান সেলিমকে প্যারোলে মুক্তি দেওয়া হয়। সন্ধ্যা সাতটায় আবার তাকে কারাগারে ফেরত নিয়ে আসা হয়।

গত ২৫ অক্টোবর রাতে কলাবাগানের ট্রাফিক সিগন্যালে হাজী সেলিমের একটি গাড়ি থেকে দুই-তিনজন ব্যক্তি নেমে নৌবাহিনীর কর্মকর্তা ওয়াসিম আহমেদ খানকে মারধর করে। এ ঘটনায় ২৬ অক্টোবর ইরফানসহ চার জনের বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় হত্যাচেষ্টার মামলাটি করেন ওয়াসিফ আহমদ খান। এরপর র‍্যাব হাজী সেলিমের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ইরফান সেলিমকে গ্রেফতার করে। এরপর থেকে তিনি কারাগারে আছেন।

সবুজ সিলেট/০১ ডিসেম্বর/শামছুন নাহার রিমু

  •