মর্গে হঠাৎ উঠে বসলো লাশ

9

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ::
রোগীকে মৃত বলে ঘোষণা করে দিয়েছিলেন হাসপাতালের চিকিৎসকরা। কিন্তু সেই রোগী হঠাৎ জেগে উঠলো মর্গে। এমনই ঘটনা ঘটেছে দেখতে কালো রঙের মানুষের দেশ কেনিয়ায়।

জানা গেছে, কেনিয়ার যুবক পিটার কিগেন। বয়স মাত্র ৩২। চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করার পর তার মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছিলো। তার মরদেহ সমাহিত করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছিলো। এমন সময় হঠাৎ উঠে বসলেন সেই যুবক। তাকে দেখে তো তখন মর্গে উপস্থিত সবার চোখ ছানাবড়া হয়ে গিয়েছিলো।

ওই যুবকের ডান পায়ে ফুটো করছিলেন মর্গের কর্মীরা। সেই ফুটো দিয়ে ফরমালিন প্রবেশ করানোর চেষ্টা করছিলেন তারা। তখনই যন্ত্রণায় কঁকিয়ে উঠলেন ওই যুবক। এরপরই তাকে দ্রুত হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসায় সাড়া দেন তিনি। ফিরে পান নতুন জীবন।

কেরিচো কাউন্টিতে কাপকাটেট হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিল পিটারকে। চিকিৎসক একের পর এক পরীক্ষা নিরীক্ষার পরও তার শরীরে প্রাণ খুঁজে পাননি। ফলে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে দেন তারা। পিটার কিগেনের দেহ রাখা হয় মর্গে। সেখানেই তার শরীর থেকে রক্ত বের করার প্রক্রিয়া শুরু করবেন বলে ঠিক করেন কর্মীরা। শরীরে ভরা হতো ফরমালিন।

সবুজ সিলেট/ এস মায়াজ আহমদ তালহা