অভিনব কায়দায় পুলিশ পরিচয়ে কানাইঘাট থেকে গোলাপগঞ্জ এনে মোটরসাইকেল ছিনতাই

20
ফাইল ছবি

কানাইঘাট প্রতিনিধি

পুলিশ পরিচয় দিয়ে অভিনব কায়দায় কানাইঘাট থেকে নিয়ে গোলাপগঞ্জে মোটর সাইকেল ছিনতাই করেছে এক ছিনতাইকারী। কানাইঘাটের নাছির উদ্দিনের মোটর সাইকেলটি ভাড়ায় গোলাপগঞ্জে নিয়ে ধারালো অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে সাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় কানাইঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

অভিযোগে জানা যায়, কানাইঘাট লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের বাজেখেল গ্রামের মৃত আব্দুল করিমের পুত্র নাছির উদ্দিন এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে তার মোটরসাইকেল দিয়ে যাত্রী পরিবহন করে আসছেন। গত ২৬ নভেম্বর রাত ৭টার দিকে স্থানীয় কান্দলা নয়াবাজার থেকে নাছির উদ্দিনের মোটরসাইকেল এক হাজার টাকায় ভাড়া করে ৪০ ঊর্ধ্ব সুঠাম দেহের অধিকারী এক অজ্ঞাত ব্যক্তি জকিগঞ্জ উপজেলার শাহগলী বাজারে যাওয়ার কথা বলে। একপর্যায়ে যাত্রি বেশি অজ্ঞাত ব্যক্তির দর্পনগর সুরমা নদীর খেয়াঘাটে আসার পর মোটরসাইকেল চালক নাসির উদ্দিনকে বলে সে পুলিশের লোক, আসামী ধরার জন্য তাকে গোলাপগঞ্জে নিয়ে যেতে হবে। রাত ৯টার দিকে পুলিশ পরিচয় দেয়া অজ্ঞাত ব্যক্তি গোলাপগঞ্জ থানা থেকে আসার কথা বলে মোটরসাইকেল চালককে থানার পার্শ্বের দাঁড়ানোর জন্য বলে। কিছুক্ষণ পর অজ্ঞাত ব্যক্তি মোটর সাইকেল চালক নাসির উদ্দিনকে বলে তাকে নিয়ে সামনে যাওয়ার জন্য ফুলবাড়ী এলাকার নির্জন স্থানে পৌঁছামাত্র মোটর সাইকেলের পিছনে থাকা ঐ ব্যক্তি ধারালো চাকু চালকের গলায় ঠেকিয়ে গাড়ী থামানোর জন্য বলে। এতে চালক ভয়ে গাড়ী থামালে অজ্ঞাত ব্যক্তি চালক নাছিরকে প্রাণে হত্যার ভয় দেখিয়ে এবং মারপিট করে রাস্তায় ফেলে দিয়ে নাছিরের প্রায় দেড় লক্ষ টাকা মূল্যের হোন্ডা সাইন এসপি মডেলের দ্রুত মোটর সাইকেল ছিনতাই করে পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর মোটরসাইকেল চালক নাছির গোলাপগঞ্জ মডেল থানায় গেলে পুলিশ তার গাড়ী উদ্ধার করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে পায়নি। যার পরিপ্রেক্ষিতে মঙ্গলবার অজ্ঞাতনামা ব্যক্তির বিরুদ্ধে কানাইঘাট থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

নাসির উদ্দিন বলেন, সে সমস্ত পুঁজি খাটিয়ে এ বছর ফেব্রুয়ারি মাসে প্রায় দেড় লক্ষ টাকা ব্যয় করে মোটরসাইকেলটি ক্রয় করেন এবং সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় মোটরসাইকেল দিয়ে যাত্রী বহন করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

সবুজ সিলেট/০১ ডিসেম্বর/সেলিম হাসান