ট্রাম্পের বিতর্কিত করোনা উপদেষ্টার পদত্যাগ

10

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক::
করোনাভাইরাস সম্পর্কিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিশেষ উপদেষ্টা স্কট অ্যাটলাস পদত্যাগ করেছেন। মাত্র চারমাস আগে তিনি নিয়োগ পেয়েছিলেন এই বিতর্কিত উপদেষ্টা। পদত্যাগপত্রে আমেরিকান জনগণের সেবা করার সুযোগ দেওয়ায় ট্রাম্পকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তিনি। তার দাবি রাজনৈতিক বিবেচনা কিংবা প্রভাব ছাড়াই তিনি সবসময়ই বিজ্ঞান সম্পর্কিত তথ্য ও প্রমাণের ওপরই নির্ভর করেছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।
আগস্টে ট্রাম্পের করোনা টিমে যোগ দেন স্কট অ্যাটলাস

চার মাস দায়িত্ব পালনের সময় স্কট অ্যাটলাস করোনা মহামারির সময় মাস্কের প্রয়োজনীয়তা এবং অন্য আরও পদক্ষেপকে প্রশ্নবিদ্ধ করেন। করোনাভাইরাস টাস্ক ফোর্সের বাকি সদস্যদের সঙ্গেও একাধিকবার বিরোধে জড়িয়েছেন তিনি।

স্টানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের রক্ষণশীল হুভার ইন্সটিটিউশনের রেডিওলোজিস্ট এবং সিনিয়র ফেলো স্কট অ্যাটলাস গত আগস্টে করোনা টাস্ক ফোর্সে যোগ দেন। মাস্কের প্রয়োজনীয়তাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার পাশাপাশি তিনি লকডাউনের বিরোধিতা করেন তিনি। মহামারি নিয়ন্ত্রণে তিনি হার্ড ইমিউনিটি (কোনও জনগোষ্ঠীর অধিকাংশ মানুষ কোনও ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠলে সেটি আর বেশি ছড়াতে না পারা) কৌশলের সমর্থক ছিলেন। গত মাসে মিশিগানে লকডাউন আরোপের পর এর বিরুদ্ধে মানুষকে জেগে ওঠার আহ্বান জানিয়ে টুইট করার পর নতুন বিতর্ক উস্কে দেন স্কট অ্যাটলাস।

শীর্ষ সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ড. অ্যান্থনি ফাউচিসহ যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা বারবারই অভিযো করেছেন ড. স্কট অ্যাটলাস প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে করোনাভাইরাসের বিস্তার নিয়ে বিভ্রান্তিকর তথ্য দিয়ে যাচ্ছেন। তার পদত্যাগের পর ড. ফাউচি বলেছেন, মহামারি শুরুর পর এই মুহূর্তে যুক্তরাষ্ট্রের পরিস্থিতি সবচেয়ে খারাপ।

ট্রাম্পের উদ্দেশ্যে লেখা পদত্যাগপত্রে স্কট অ্যাটলাস বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের বিশেষ উপদেষ্টার পদ থেকে পদত্যাগ করছি আমি। এই মহামারিতে আমেরিকানদের জীবন বাঁচানোর একমাত্র লক্ষ্য নিয়ে আমি সর্বোচ্চটা দিয়ে কাজ করেছি।’

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের মহামারিতে এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের এক কোটি ৩০ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত এবং দুই লাখ ৬৬ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

সবুজ সিলেট/০২ডিসেম্বর/শামছুন নাহার রিমু

  •