দেশেই তৈরি হবে বছরে ৩ লাখের বেশি স্যামসাং স্মার্ট টিভি

6

সবুজ সিলেট ডেস্ক ::
বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে দেশের কারখানায় তৈরি বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রনিক্স ব্র্যান্ড স্যামসাংয়ের স্মার্ট টেলিভিশন।

প্রতিদিন এক হাজার উৎপাদন ক্ষমতা ধরে বছরে ৩ লাখের বেশি টিভি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে নরসিংদীতে চালু হয়েছে স্যামসাংয়ের এই কারখানা।

দেশীয় প্রতিষ্ঠান ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে স্থাপিত কারখানায় শনিবার টিভির উৎপাদন আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান (এনবিআর) আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

ঢাকা থেকে ৫০ কিলোমিটার দূরে নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার কামারগাঁওয়ে বিশাল কারখানাতেই তৈরি হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ার ইলেকট্রনিক পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান স্যামসাংয়ের টিভি।

বাংলাদেশি কোম্পানি ‘ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স লিমিটেড’ ৬০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করে ১৬ একর জমির উপর গড়ে তুলেছে এই কারখানা।

২০১৮ সালে বাংলাদেশে মোবাইল হ্যান্ডসেট সংযোজন দিয়ে এ কারখানায় যাত্রা শুরু করে, এর পরের বছর শুরু হয় ফ্রিজ তৈরি। এরই ধারাবাহিকতায় এবার যাত্রা শুর করল স্যামসাং স্মার্ট টিভি ম্যানুফ্যাকচারিং প্লান্ট।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, এই কারখানায় সকল স্যামস্যাং স্মার্ট টিভি উৎপাদন হচ্ছে, যা লাইট ইন্জিনিয়ারিং প্রযুক্তি শিল্পে বাংলাদেশে অনবদ্য অবদান রাখবে। স্যামসাংয়ের মোবাইল ফোন ও ইলেকট্রনিক্স কারখানা যেমন বিদেশি বিনিয়োগকে উৎসাহিত করছে তেমনি ব্যাপক কর্মসংস্থানও সৃষ্টি করছে।

“স্যামসাং ও ফেয়ার ইলেকট্রনিক্সসহ প্রযুক্তি শিল্পের বিনিয়োগকারীদের জন্য আমাদের নীতি সহায়তা ও সকল ধরনের সাহায্য সহযোগীতা বৃদ্ধির প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে, যা দেশের অর্থনীতিকে শক্তিশালী করবে বলে আমরা আশা করি।”

ফেয়ার গ্ৰুপের চেয়ারম্যান রুহুল আলম আল মাহবুব বলেন, “বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনিমার্ণে স্যামসাং এর অত্যাধুনিক টিভি ম্যানুফ্যাকচারিং প্লান্টে তৈরি টিভি ডিজিটাল ক্লাসরুমসহ নানাবিধ কার্যক্রমে সহায়তার মাধ্যমে বাংলাদেশের ডিজিটালাইজেশনকে ত্বরান্বিত করবে। একইসাথে ভবিষ্যতে বিদেশে রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখবে।”

ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স স্যামসাং মোবাইল ফোন, টিভি, ফ্রিজ, এয়ার কন্ডিশনার এবং মাইক্রোওয়েভ ওভেনের প্রস্তুতকারক ও বিপননকারী।

ফেয়ার ইলেকট্রনিক্সের প্রধান বিপণন কর্মকর্তা মেজবাহ উদ্দিন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এই প্ল্যান্টে প্রায় ২০টি মডেলের ৩২ থেকে ৮৫ ইঞ্চি স্মার্ট টিভি তৈরি করা হবে। ৩২ হাজার স্কয়ার ফিটের এ কারখানায় বর্তমানে ১০০ এর বেশি লোকবল রয়েছে। কয়েক মাস আগে থেকে উৎপাদনে যাওয়াতে বর্তমানে এ কারখানায় তৈরি ৫০ হাজারের বেশি টিভি বাজারে রয়েছে।”

৩২ হাজার স্কায়ার ফিটের স্মার্ট টিভি তৈরি প্ল্যান্টে প্যানেল সিট থেকে অন্যান্য যন্ত্রপাতি নিয়ে এসে স্মার্ট টিভি তৈরি করা হচ্ছে; আগামীতে দেশে টিভি মাদারবোর্ড তৈরি করা হবে বলে জানান মেজবাহ উদ্দিন।

প্রতি বছর প্রায় ৩ লাখের বেশি টিভি এ প্ল্যান্ট থেকে সরবরাহ করা হবে জানিয়ে মেজবাহ বলেন, “দেশে তৈরি টিভি বাজারে আসা মাত্র দাম কমতে শুরু করেছে ইতিমধ্যে ৩২ ইঞ্চি স্মার্ট টিভি মাত্র ২৪ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। অন্যান্য মডেলের টিভি বাজারে আসলে ক্রেতারা ৩০ শতাংশ কম দামে টিভি পাবে।”

বর্তমানে বাংলাদেশে প্রতিবছর ১৭ লাখ টিভির চাহিদা রয়েছে বলে জানান মেজবাহ উদ্দিন।

এ সময় নরসিংদী জেলা প্রশাসক সৈয়দা ফারহানা কাউনাইন, স্যামসাং ইলেক্ট্রনিক্স বাংলাদেশের জেনারেল ম্যানেজার বোমিন কিমসহ সরকারের অন্যান্য উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা, স্যামসাং এবং ফেয়ার গ্ৰুপের কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সবুজ সিলেট/ এস মায়াজ আহমদ তালহা